স্কুল না থাকায় পিছিয়ে পড়ছে কুমিল্লার সীমান্তবর্তী ৪ গ্রাম

কুমিল্লা সদর দক্ষিন সংবাদদাতা :
স্কুল না থাকায় পিছিয়ে পড়ছে কুমিল্লার সীমান্তবর্তী ৪ গ্রাম, শিক্ষা বিমুখ হয়ে পড়ছে কুমিল্লা সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের ৪ গ্রামের প্রায় এক হাজার শিশু।
স্থানীয়রা জানান, ভারতীয় সীমান্ত লাগোয়া কটক বাজার, সাহাপুর, নোয়াপাড়া ও জোড়া মেহের গ্রামে কোনো স্কুল নেই। এসব গ্রামে স্কুল না থাকায় ছেলে মেয়েদের পড়তে যেতে হয় ২ থেকে ৩ কি.মি দূরের ঘিলাতলী ও বিবির বাজার এলাকার রাজমঙ্গলপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।
দূরত্বের কারণে অনেক অভিভাবক শিশুদের স্কুলে পাঠাচ্ছেন না, শিশু গুলো ডুবছে অন্ধকারে, জড়িয়ে পড়ছে অপরাধমুলক কর্মকাণ্ডে। ৪ গ্রামে প্রায় ৬ হাজার মানুষের বসবাস। এদের মধ্যে ৩০ শতাংশ লোক দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করছে। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে অভিভাবকরা শিশুদের স্কুলে পাঠাচ্ছেন না। এ সকল শিশু দিনের অনেকটা সময় খেলাধুলা এবং ঘর গেরস্থালির কাজ করে সময় কাটাচ্ছে। তাদের জীবন থেকে হারিয়ে যাচ্ছে সোনালী দিন। স্কুল বিহীন এলাকায় শিশুদের জন্য সাহাপুরে অন্তত একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
কটকবাজার গ্রামের সর্দার জাহাঙ্গীর হোসেন, সাহাপুর গ্রামের ইউপি সদস্য সুনীল চন্দ্র দাস বলেন, স্কুল থাকলে গ্রাম গুলোর শিক্ষা বঞ্চিত শিশুরা আরো অনেক এগিয়ে যেতো। সচেতনতার পাশাপাশি গ্রাম গুলোতে আসতো অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি । জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ গ্রাম গুলোতে স্কুল প্রতিষ্ঠার দাবি করেন। তিনি এ বিষয়ে জেলা শিক্ষা অফিসে আবেদন করবেন বলেও জানান।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply