পলাশবাড়ীতে পিআইও উধাও : এমপি ও উপজেলা পরিষদের দ্বন্দ্বে ২৯৩ মেট্রিক টন গম ফেরৎ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে সংসদ সদস্য ও উপজেলা পরিষদের মধ্যে দ্বন্দ্বের রশি টানা টানির কারণে ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের বরাদ্দকৃত ১কোটি টাকা মূল্যের ২৯৩ মেঃটন গম ৩০ জুন ফেরৎ গেছে। এ খবর শহরে ছড়িয়ে পড়লে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোতাহার হোসেন অফিসে তালা ঝুলিয়ে গত ৩০ জুনের তিপর থেকে ধরে উধাও হয়ে গেছেন। জানা গেছে, গত মার্চ মাসে পলাশবাড়ী উপজেলায় গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষন কাজে সাধারণ টিআর কর্মসূচীর আওতায় প্রথম ও দ্বিতীয় কিস্তর ২৯৩ মেঃটন গম বরাদ্দ দেয়া হয়। এ বরাদ্দের বিপরীতে গত ২২ জুন উপজেলা পরিষদ অনুমোদন দিয়ে# গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের কাছে প্রেরণ করা হয়। এ খবর জানার পর গাইবান্ধা-৩(পলাশবাড়ী-সাদুলাপুর) আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ টিআইএম ফজলে রাব্বী চৌধুরী গাইবান্ধা জেলা প্রশাসককে টিআর প্রকলগুলো অনুমোদন না দেওয়ার জন্য ডিও লেটার দেন। ডিও লেটারে উলেখ করা হয়, পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদের জন্য বরাদ্দকৃত সাধারণ টিআর এর প্রকল্প প্রনয়নে তার সাথে কোন পরামর্শ করা হয়নি। এরই প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক পলাশবাড়ী উপজেলার উলেকিত টিআর প্রকল্প-গুলো অনুমোদন দেয়া থেকে বিরত থাকেন। উলেখ্য,গত ২৭ জুন বরাদ্দকৃত টিআর এবং মালামাল ছাড় করার শেষ দিন ছিল্ যথাসময়ে টিআর এর প্রকল্পগুলো অনুমোদন না হওয়ায় বরাদ্দকৃত গম ফেরৎ যায়। এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন না করেই গম এবং টাকা উত্তোলন করে নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই অভিযোগ তুলে চেয়ারম্যান একেএম মোকছেদ চৌধুরী গত ৩০ জুন উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তার কাছে একটি চিঠি পাঠান (যার স্মারক নং-৪৬,তারিখ-৩০/৬/১১)। ওই পত্রে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটিসমুহ ভুয়া উলেখ করে বরাদ্দকৃত টাকা ছাড় না দেয়ার জন্য বলা হয়। বরাদ্দকৃত গম ফেরৎ যাওয়ার পর থেকে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তার অফিসে তালা ঝুলিয়ে উধাও হয়ে গেছেন। বাস্তবায়ন কর্মকর্তা উধাও হওয়া নিয়ে জনমনে ব্যাপক প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।




Check Also

মিনি ওয়াক-ইন-সেন্টারের মাধ্যমে রবি’র গ্রাহক সেবা সম্প্রসারণ

ঢাকা :– গ্রাহক সেবাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে মোবাইলফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড সম্প্রতি মিনি ওয়াক ...

Leave a Reply