আশুগঞ্জে এক লাখ টাকা ও ফার্নিচারের জন্য গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়া :

ব্রাহ্মনবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার বাজারচারতলা গ্রামে যৌতুকের জন্য লাভলী বেগম(২০) নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে শ্বাসরোধ হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্বার করে রবিবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার বিকালে বাজারচারতলা গ্রামে নিহতের স্বামীর বাড়ীতে। এ ব্যাপারে নিহতের পিতা মোঃ হাবিবুর রহমান বাদী হয়ে স্বামী কামরুল ইসলামকে প্রধান আসামীসহ ৫জনকে আসামী করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

মামলার বিবরনে জানাযায়,উপজেলার বাজারচারতলা গ্রামের দিলকুস মেম্বারের ছেলে মোঃ কামরুল ইসলামের সাথে গত ২ বছর আগে একই উপজেলার লালপুর গ্রামের দরিদ্র কৃষক হাবিবুর রহমানের মেয়ে লাভলী বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য স্বামী, দেবর ও শ্বাশুরী প্রায়ই লাভলীকে নির্যাতন করতো।

ঘটনার দিন শনিবার বিকলে এক লাখ টাকা ও ঘরের ফার্নিচারের জন্য লাভলীকে তার স্বামী ব্যাপক মারধর করে। মারধরের এক পর্যায়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে লাভলীকে ঘরের ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে দিয়ে আত্বহত্যা করেছে বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার রাত ১২ টায় স্বামীর বাড়ীর পাকা ঘরের চৌকির উপর থেকে লাভলীর লাশ উদ্বার করে।

নিহতের পিতা মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, মেয়ের জামাতা কামরুল ইসলাম সৌদি আরব থেকে আসার পর থেকেই এক লাখ টাকা ও ঘরের ফার্নিচার দেয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। আমি দরিদ্র কৃষক এসব দিতে না পারায় প্রায়ই আমার মেয়েকে শাররীক ভাবে নির্যাতন করতো। ঘটনার দিন দুপুর ২টায় আমার মোবাইলে লাভলী ফোন করে নির্যাতনের বর্ননা দিয়ে ব্যাপক কান্নাকাটি করে। এর কিছুক্ষন পরেই আমি জানতে পারি লাভলী আর বেঁচে নেই।

তিনি এঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ট বিচার দাবী করেন। এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জাফর চৌধুরী জানান নিহত লাভলীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। থানায় হত্যা মামলা রুজু হয়েছে। ময়না তদন্তের রির্পোট ছাড়া সুনির্দিষ্ট ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। ঘটনার পর স্বামীর বাড়ীর লোকজন পালিয়ে গেছে।




Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply