চাঁদপুর আদালতে মিলনের ২২তম মামলার হাজিরা

এ কে এম শাহেদ (চাঁদপুর) : চাঁদপুর জেলা ও দায়রা জজ সফিকুল করিম এর আদালতে সাবেক শিা প্রতিমন্ত্রী আ.ন.ম এহসানুল হক মিলনের ২২ তম মামলার শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আদালতে মিলনের পে আইনজীবীরা জামিনের প্রার্থনা করলে আদালত জামিন মঞ্জুরের আদেশ দেন। মামলার বিবরণে জানা যায় লতিপপুরের হাজী মোঃ তোহার পুত্র হারুনুর রশিদ ২০০১ সালে ৪৫ ল টাকা তি সাধন ও লুটপাটের কথা উলেখ করে ২০১১ সালে মিলন সহ ৪জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করে। কিন্তু গত ১৫-০৪-২০১১ তারিখে কচুয়ার পালগীরির মুকবুল আহমেদের ছেলে মহিউদ্দিন কাউছার মিলনসহ ২জনকে আসামী করে ২৩ তম মামলা দায়ের করে। যার প্রেেিত মিলনকে শোন এরেস্ট দেখিয়ে জেলে আটকে রাখা হয়। এ মামলার পরবর্তি শুনানী আগামী ২৪ এপ্রিল ধার্য্য করা হয়। মিলনকে কুমিলা কারাগার থেকে চাঁদপুর আদালতে আনা হলে কড়া পুলিশি বেষ্টনিতে ছিল আদালত প্রাঙ্গন। মিলন আদালতে হাজিরা শেষে বেড়িয়ে মাইক্রোতে উঠার সময় উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন “আমার বিরুদ্ধে আর কত মামলা হবে? আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে আমার বিরুদ্ধে দ্রুত মামলা করতে আসুন। তবে কচুয়ার জনগণ মখা আলমগীরের কর্মকান্ডে অতিষ্ঠ। আগামীতে কচুয়ার জনগণ এর সমোচিন জবাব দেবে।” মিলনের পে আইনজীবিরা হলেন এড. কাজী মোজাম্মেল হোসেন, এড. ইকবাল বীন বাসার, এড. কামরুল ইসলাম, এড. জাহাঙ্গীর আলম, এড. মিজানুর রহমান, এড. হারুনুর রশিদ, এড. কামাল উদ্দিন আহমেদ, এড. মাঈনুল ইসলাম, এড. তৌহিদুল ইসলাম তরুন, এড. মোঃ হারিছ, এড. সামছুল ইসলাম মন্টু, এড. আব্দুলা হিল বাকী, এড. সালমা বেগম, এড. জাহাঙ্গীর হোসেন খান সহ অর্ধশতাধিক জাতীয়তাবাদী আইনজীবি ফোরামের আইনজীবিগণ। এছাড়াও ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মঞ্জিল হোসেন মঞ্জিল এ সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply