নাঙ্গলকোটে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পে ব্যাপক দূর্নীতির অভিযোগ

নাঙ্গলকোট সংবাদদাতা :
নাঙ্গলকোট নাঙ্গলকোটে একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পে সুবিধাভোগীদের মাঝে ঢেউটিন ও গরু বিতরনে উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা আবদুর রহমান আজাদ এর বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে । অভিযোগে জানা যায় – প্রকল্পের ৩০ জন সদস্য প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা মূল্যের টিন দেওয়া কথা থাকলেও ৮ ফুটি ১৪ পিচ টিন ক্রয় করেছে যার মূল্য ৬ হাজার টাকা ।

গরু ক্রয়ে ২০ হাজার টাকার পরিবর্তে ১৫/১৬ হাজার টাকার গরু

বিতরণ করেছে । উক্ত প্রকল্পের আওতাধীন ২০টি সমিতির ৬০জন করে প্রত্যেক সদস্য থেকে ১০০ টাকা হারে চাঁদা নিয়ে ৫০ টাকা হারে ব্যাংকে জমা দিয়ে বাকি টাকা অফিস খরচ দেখিয়ে আতœসাতের অভিযোগ রয়েছে । মোড়েশ্বর সমিতির ম্যানেজার ছেরাজুল হক , বিরলীর ম্যানেজার জাহাঙ্গীর আলম , খাটাচৌ সমিতির ম্যানেজার হাবিবুল্লাহ সহ ২০ জন উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান মজুমদারের নিকট অভিযোগ দাখিল করেন । অভিযোগের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য গতকাল উপজেলা

নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ রেহান উদ্দিন এর উপস্থিতিতে উপজেলা চেয়ারম্যান , উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন কালু , ভাইস চেয়ারম্যান এম এ করিম মজুমদার , নাছরিন আক্তার মুন্নী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক চেয়ারম্যান আবু তাহের ও বিশিষ্ট টিন ব্যাবসায়ী রফিকুল হায়দার সহ দলীয় নেতৃবৃন্দ পল্লী উন্নয়ন অফিসে রক্ষিত টিন গুলি পরীক্ষা করে দেখেন ।টাকার তুলনায় টিনগুলি কম দামের হওয়ায় বিতরন বন্ধ করার নির্দেশ দেন ।এ ব্যাপারে

পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা আবদুর রহমান আজাদ বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়নে স্বচ্ছ ও দুর্নীতি মুক্ত রাখতে চেষ্টা করেছি। চাদার ব্যপারে বলেন, অফিস খরচ বাবত ২০টি সমিতি থেকে ২০টাকা হারে নিয়েছি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply