চৌদ্দগ্রামে মাদক সম্রাট আটকের পর ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

জামাল উদ্দিন স্বপন:
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম পুলিশ শনিবার সন্ধ্যায় খালেক নামে এক মাদক সম্রাটকে মাদকসহ আটকের পর গভীর রাতে যুবলীগ নেতার প্রভাবে থানা থেকে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার সন্ধ্যায় চৌদ্দগ্রাম থানার সেকেন্ড অফিসার মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল উপজেলার বাতিসা এলাকার কালিকাপুর গ্রামের মিয়া ও বসুসহ কয়েকজনের ঘরে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশ বিপুল সংখ্যক ফেনসিডিল, হুইস্কি ও বাংলা মদসহ ওই এলাকার মৃত জাফর আলীর ছেলে মাদক সম্রাট আবদুল খালেককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। কিন্তু পুলিশ সাংবাদিকদের কাছে শুধুমাত্র ৫ বোতল হুইস্কি ও ১০ লিটার বাংলা মদসহ খালেককে আটকের কথা স্বীকার করে। খবর পেয়ে উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জিএম জাহিদ হোসেন টিপু থানায় গিয়ে সবার সামনে সেকেন্ড অফিসারকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে রবিবার সকাল ১০টার মধ্যে থানা থেকে বদলি করার হুমকি দেয়। এর কিছু পর থানা থেকে মাদক সম্রাট খালেককে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এনিয়ে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

এব্যাপারে থানার সেকেন্ড অফিসার মিজানুর রহমান বলেন, সরকার দলীয় নেতা টিপুর গালমন্দসহ সকল বিষয়ে ওসিকে অবহিত করে মাদক পানের কোন লক্ষণ না দেখে খালেককে ছেড়ে দেয়া হয়।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply