স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করায় :সরাইলে ৫ গ্রামের লোকদের প্রতিবাদ সভা

আরিফুল ইসলাম সুমন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ॥
স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে হয়রানীমূলক মামলা দায়েরের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ৫ গ্রামের লোকজন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের শাখাইতি পূর্ব পাড়ায় এই প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এলাকার প্রবীণ সর্দার তোতা মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন হাজী গাজিউর রহমান, আব্দুল হামিদ, সাবেক মেম্বার মন মিয়া, সাবেক মেম্বার নুরু মিয়া, মোতাহার হোসেন মাষ্টার, মোহাম্মদ আলী, মোহাম্মদ ফরিদ মিয়া, মোঃ ইদ্রিস আলী, ডাঃ মোর্শেদ মিয়া, আকবর আলী সর্দার, আবুল কাশেম মেম্বার, নুর আহমেদ, চাঁন মিয়া ও আবু সাঈদ।

বক্তারা অবিলম্বে পানিশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোমিন মাষ্টার ও তার গোষ্ঠীর লোকদেরকে আসামী করে প্রতিপক্ষের দায়েরকৃত হয়রানীমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। বক্তারা বলেন, এলাকার পূর্ব বিরোধের জের ধরে একটি কুচক্রীমহল হয়রানীমূলক মামলা দিয়ে মোমিন মাষ্টার ও তার পরিবারকে নাজেহাল করার চেষ্টা করছে। অবিলম্বে হয়রানীমূলক মামলা প্রত্যাহার না করা হলে পরবর্তীতে তারা কর্মসূচী দেয়ার ঘোষণা দেন। প্রতিবাদ সভায় ইউনিয়নের নাইলা, শোলাবাড়ি, শাখাইতি, দেওবাড়িয়া ও তারাখলা গ্রামের ৪ হাজার লোক অংশ নেয়।

উল্লেখ্য, গত ১০ মার্চ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় সরাইলের মেঘনা নদীতে দু’টি নৌকার মধ্যে সংঘর্ষ হলে একটি নৌকার যাত্রী ১৪ বছরের শারিরীক প্রতিবন্ধী কিশোরী রুমা বেগম পানিতে ডুবে মারা যায়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রুমার পিতা বাবুল মিয়া এলাকায় তাদের প্রতিপক্ষ শাখাইতি গ্রামের মোমিন মাষ্টার, তার ভাই আব্দুল হামিদ, ভাতিজা এরশাদ ও আক্তার হোসেনের নামে সরাইল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় বলা হয় মোমিন মাষ্টার ও আব্দুল হামিদের ইন্দনেই একটি ইঞ্জিনের নৌকা রুমা ও তার পরিবারের লোকদের বহনকারী নৌকাকে ধাক্কা দেয়। এতে রুমা আক্তার মেঘনায় তলিয়ে গিয়ে মারা যায়।




Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply