সদর দক্ষিণে জাল দলিলে সম্পত্তি আত্নসাতের চেষ্টা

জামাল উদ্দিন স্বপন:
সদর দক্ষিণ উপজেলার বেলঘর ইউনিয়নের আজবপুর গ্রামের (ম্যারেজ রেজিষ্টার) কাজী মাওলানা মোহাম্মদ উল্ল্যার বিরুদ্ধে তার মায়ের সম্পত্তি জাল কবলা করে জোর পূর্বক জমি দখল ও বড় ভাই আবু তাহেরকে থানায় ও কোটে দুইটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগে জানা যায় কাজী মাওলানা নুর মোহাম্মদ গত ১২ই ফেব্র“য়ারী গ্রাম্য শালীস দরবারে তার মায়ের দেয়া ৩০মে ১৯৮৮ইং তারিখের টিপ সই সম্মেত একখানা হেবা নামা দলিল উপস্থাপন করে। মৃত্যু সনদে দেখা যায় তার মা আফছরের নেছা ১৩মে ১৯৮৮ইং মৃত্যু বরণ করনে। তাহার ভাই আবু তাহের এবং উপস্থিত শালিসদারদের কাছ থেকে জানা যায় উক্ত হেবা নামা দলিলে সনাক্তকারী ও স্বাক্ষীগণ তাহাদের গ্রামের বা আসে পাশের গ্রামের কেউ নন এবং তার মা একজন শিক্ষিত মহিলা তার হাতের লেখা ও বেশ সুন্দর ছিল। অথচ দলিলে পাওয়া যায় টিপ সই। উপস্থিত বিভিন্ন এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ এই সিদ্ধান্তে উপনিত হয়েছেন যে, নুর মোহাম্মেদের দাখিলকৃত হেবা দলিলটি জাল দলিল। নুর মোহাম্মদ একজন শান্তি ভঙ্গকারী ও আইন অমান্যকারী বলিয়া বিজ্ঞ দরবারীগণ বাংলাদেশ সরকারের আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নিকট তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন। শালিস দারবারের উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তিরা হলেন বেলঘর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি অহিদুর রহমান মজুমদার, বিশিষ্ট বিএনপি নেতা মোরশেদ মজুমদার, আবুল হাশেম, মেম্বার ইউছুপ, সাবেক মেম্বার আবু হোসেন ননু, মেম্বার রফিকুল ইসলাম, সদর দক্ষিণ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবদুল কুদ্দুছ, মেম্বার আব্দুল মন্নান মনু, যুক্তিখোলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওয়াহিদুর রহমান, জুনিয়র স্কুলের প্রধান শিক্ষক শাহাদাত হোসেন মজুমদার, সাবেক মেম্বার জাহাঙ্গীর আলম মজুমদার, সাবেক মেম্বার জহির উল্ল্যাহ, মেম্বার মোকলেছ, মেম্বার জাহাঙ্গীর সহ ৫শতাধিক লোকজন দরবারে উপস্থিত ছিলেন।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply