তিতাসে ছোলা চাষে আগ্রহী করতে কৃষকদের আহ্বান

নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস :

তিতাস উপজেলার বাতাকান্দি ব্লকের চাষকৃত বারি ছোলা-৫ জাতের ফসলী জমি পরির্দশন করেন জেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ বিশ্লেষজ্ঞ আলহাজ্ব মোঃ আঃ হাই খান এবং উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাগণ।
সোমবার সকাল ১১টায় তিতাস উপজেলার বাতাকান্দি ব্লকের কেশবপুর ফসলী জমিতে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উদ্যোগে ডাল, তেল ও পেঁয়াজ বীজ উৎপাদন সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্পের আওতায় কৃষক মাঠ দিবস এবং বারি ছোলা-৫ ফসলী জমি পরিদর্শন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সাতানী ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আবদুল লতিফ সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে কুমিল্লা জেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ বিশ্লেষজ্ঞ আলহাজ্ব মোঃ আঃ হাই খান বলেন, চিরাচিরিত নিয়মে বীজ সংরক্ষণ করলে তাতে বীজের মান ভালো থাকে না। এতে পরবর্তীতে সফলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। সঠিক নিয়ম অনুসরণ করে বীজ সংরক্ষণ করলে বীজের গুণগতমান বজায় থাকে এবং ফসলও ভালো হয়। ছোলা চাষে আগ্রহী হওয়ার জন্য তিনি তিতাসের কৃষকদের ধন্যবাদ জানান এবং আগামী বছরে বারি ছোলা-৫ এর পাশাপাশি আরো ৫টি জাতের ছোলা চাষ করার জন্য অনুরোধ করেন। ডাল চাষ সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, গরুর মাংসের যে পরিমাণ পুষ্টি থাকে ডালেও সেই পরিমাণ পুষ্টি থাকে। স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে ডাল চাষ করার জন্যও তিনি তিতাসবাসীকে আহ্বান করেন। পরে তিনি উপস্থিত কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ সংরক্ষণের ড্রাম বিতরণ করেন।

উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা আতিকুর রহমান খাঁন এর পরিচালনায় উক্ত মাঠ দিবসে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আঃ রব, আমাদের কুমিল্লার তিতাস প্রতিনিধি নাজমুল করিম ফারুক। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাতাকান্দি ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম, আইপিএম ক্লাবের প্রতিনিধি গোলাম মোস্তফা, কৃষক প্রতিনিধি মোঃ ইসলাম মিয়া।

আলোচনা সভার পূর্বে বাতাকান্দি ব্লকের চাষকৃত বারি ছোলা-৫ জাতের ফসলী জমি পরির্দশন করেন জেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ বিশ্লেষজ্ঞ আলহাজ্ব মোঃ আঃ হাই খান।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply