কচুয়ার সাচার-বিতারা রাস্তার কাজ অবশেষে শুরু

কিশোর কুমার, ৬ ফেব্রুয়ারি :

চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার সাচার-বিতারা রাস্তা অত্যন্ত জন গুরুত্বপূর্ন। দীর্ঘ ২ যুগ থেকে এলাকাবাসী এ রাস্তা পুনঃ সংস্কার করে পাকা করনের দাবী জানিয়ে আসছে। ক’বছর পূর্বে এ রাস্তার বিতারা অংশে ১ কিলোমিটার পাকা করা হয়। বাকি সাড়ে ৪ কিলোমিটারের ভগ্ন দশা। এ সাড়ে ৪ কিলোমিটার অংশের ২.৮ কিঃ মিটারের বেহাল দশা উল্লেখ করে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নির্মানের জন্য সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রস্তাব পাঠানো হলে উক্ত অংশের ২ কিঃ মিঃ রাস্তা নির্মানের জন্য অর্থ বরাদ্ধ হয়।

২০১০ সালের ২৬ আগষ্ট এ রাস্তার কার্যাদেশ দেয়া হয়। প্রাক্কলিত ব্যায় ধরা হয় ৯১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা। যার মধ্যে ভগ্ন রাস্তার মাটি ভরাটের জন্য ১২ লক্ষ টাকা বরাদ্ধ রয়েছে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘তালুকদার ট্রেডার্স’ ২৯ আগষ্ট, ২০১০ইং তারিখে কার্যাদেশ গ্রহন করে। কার্যাদেশ পাওয়ার পর ২.৮ কিলোমিটার রাস্তা পূর্ব প্রান্ত থেকে (বিতারা থেকে) কাজ শুরু করা হবে না পশ্চিম প্রান্ত অর্থাৎ সাচার বাজারের পূর্ব পাশের মসজিদের সম্মুখ থেকে শুরু করা হবে এ নিয়ে টানা হেঁচড়া চলে। পশ্চিম প্রান্ত থেকে (সাচার-দূর্গাপুর অংশ ২ কিঃমিঃ অংশ) শুরু করা হলে মাটি ভরাটের কাজে খরচ বেড়ে যেতে পারে। এমনি ভাবনায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান পূর্ব প্রান্ত থেকে (বিতারা থেকে) কাজ শুরু করতে আগ্রহ দেখায়। কিন্তু বাদ সাধে স্থানীয় অধিবাসীরা।

অবশেষে স্থানীয় অধিবাসীদের জোড়ালো দাবীর মুখে দীর্ঘ ৬ মাস পর ২৮ ফেব্র“য়ারী সাচার বাজারের মসজিদের সম্মুখ থেকে (পশ্চিম প্রান্ত থেকে) রাস্তার মাটি ভরাটের কাজ শুরু করা হয়। কার্যাদেশের বলা হয়েছে- আগামী ৩ আগষ্ট ২০১১ তারিখের মধ্যে উক্ত কাজ সম্পাদন করতে হবে। কিন্তু বর্ষা মৌসুম শুরু হতে খুব বেশি দেরি নয় বিধায় এ কাজ নির্দিষ্ট সময়ে সম্পাদন হবে কিনা এ নিয়ে জনমনে বেশ সংশয় দেখা দিয়েছে।

এ দিকে সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে ওই রাস্তার পশ্চিম প্রান্তে অর্থাৎ সাচার বাজারের মসজিদের সম্মুখের খালের উপর ব্রীজ নির্মান প্রকল্প হাতে না নেয়ায় রাস্তা সংস্কার ও পাকা করন কাজ সম্পাদন সম্ভব হলেও জনগন প্রত্যাশিত সুবিধা ভোগ করতে পারবে না। বর্তমানে মসজিদের সম্মুখে নড়বড়ে বাঁশের সাকোর উপর দিয়ে দূর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে লোকজন চলাচল করছে। এ রাস্তাটি বিতারা হয়ে চান্দিনা উপজেলার নবাবপুর বাজারের সাথে সংযোগ ঘটেছে। ফলে সাচার ইউনিয়নের পূর্ব অংশের ক’টি গ্রামের অধিবাসীসহ বিতারা ইউনিয়নের প্রায় ৩০ হাজার অধিবাসী ও চান্দিনা উপজেলার দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলের বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠির সাচার বাজারে আসা যাওয়ার জন্য খুবই গুরুত্বের দাবীদার। এ রাস্তা পাকা করন ও বর্নিত ব্রীজ নির্মান হলে উল্লেখিত জনগনের চলাচলের পথ সু-গম হওয়া ছাড়াও সাচার বাজারটি ব্যবসা বানিজ্যের দিক থেকে দ্রুত সমৃদ্ধি লাভ করবে।

Check Also

যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে : বিএনপি

চাঁদপুর প্রতিনিধি :– চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সাধারণ সভায় বক্তারা বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম ...

Leave a Reply