দেবিদ্বারে অপহরনের ৫দিন পর কিশোরী উদ্ধার

কুমিল্লা, ২৬ ফেব্রুয়ারী (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :
অপহরন হবার ৫ দিন পর পুলিশ কতৃক উদ্ধার হয়েছে দেবিদ্বারের এক কিশোরী। দেবিদ্বার উপজেলার বেগমাবাদ গ্রামরে শ্যামল পোদ্দারের মেয়ে সুমি রানী পোদ্দার কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী দ্বারা অপহরন হওয়ার ৫দিন পর শুক্রবার রাতে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

জানা যায়, গত ২১ই ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় উপজেলার হোসেনপুর গ্রামের রুক্কু মিয়ার পুত্র বাবুল মিয়া ও একই উপজেলার লীপুর গ্রামের আবুল কালাম নামে দুই অপহরনকারী ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সুমিকে জোরপূর্বক ভাড়া করা সিএনজিতে উঠিয়ে নিয়ে যায়। অপহরন করে প্রথমে আবুল কালামের শ্বশুড়বাড়ি কুমিল্লায় নিয়ে আসে, পরে শহরের ইপিজেড এলাকার একটি ভাড়া করা বাড়িতে তালাবদ্ধ অবস্থায় আটকে রাখে এবং দুদিন পর ঢাকায় নিয়ে যায়। এর মধ্যে ঘটনা জানাজানি হয়ে গেলে এবং থানায় অভিযোগ করলে, পুলিশের জোর তৎপরতা টের পেয়ে অপহরনকারীরা সুমিকে কুমিল্লাগামী একটি বাসে তুলে দেয়, এবং বলে দেয় গৌরীপুর নেমে হোমনায় তার মামার বাড়ি চলে যাওয়ার জন্য। হোমনায় গিয়ে যেন সবাইকে বলতে যে সে বাড়ি থেকে রাগ করে বাড়ি থেকে পালিয়ে এসেছে, অনথ্যায় পরিবার শুদ্ধ তাকে হত্যা করার হুমকি দেয়।

এদিকে দেবিদ্বার থানা পুলিশ অভিযোগপত্র হাতে পাওয়ার পর এস.আই আবু জাহেরের নেতৃত্বে একটি ফোর্স জোর অভিযান চালায় এবং সুমির মোবাইল কললিস্ট দিয়ে সোর্স লাগিয়ে তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাতে থাকে। অবশেষে শূক্রবার রাতে সুমিকে দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর এলাকা থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। উল্লেখ্য এর আগেও একবার বাবুল সুমি পোদ্দারকে ১২ ঘন্টা আটকে রেখেছিল বলে জানা যায়। তবে বাবুলের হমকি-ধমকির কারনে কোস আইনগত ব্যবস্থা নেয়নি। তবে এলাকাবাসী জানায় বাবলু বাহিনী অত্র এলাকায় আরও অনেক সংখ্যালঘু নির্যাতন সহ বহু অসামাজিক কাজের নায়ক হলেও এদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে চায় না।




Check Also

নিউইয়র্কের চিকিৎসক ফেরদৌস খন্দকারে দেওয়া খাদ্য পাচ্ছে দেবিদ্বারের ১ হাজার পরিবার

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে লকডাউনের কারনে কর্ম হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছে দেশের হাজার হাজার ...

Leave a Reply