বাঞ্ছারামপুরের সোহাগ হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে হেলাল মিয়া

লিটন চৌধুরী,ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৪০২.১১ :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার রূপসদী গ্রামের মো. সোহাগ মিয়া হত্যাকান্ডে গ্রেফতারকৃত মো. হেলাল মিয়া (৩০) নিজের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট (বিচারিক হাকিম) শরীফুল আলম ভুইয়ার আদালতে এ জবানবন্দি দেয়। এর পুর্বে গত বুধবার রূপসদী দক্ষিন বাজার থেকে এলাকাবাসী হেলাল মিয়াকে আটক করে বাঞ্ছারামপুর থানা পুলিশ এর নিকট সোপর্দ করে। সে সময় এলাকাবাসীকে হেলাল জানায়, মামুন মোক্তারের দোকানে সোহাগকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয় এবং পরিকল্পনা মোতাবেক সোহাগকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও বাঞ্ছারামপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, হেলাল মিয়া নিজের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে আদালতে সোহাগ মিয়ার হত্যাকারীদের (কিলিং মিশনে) নাম বলেছে।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা গেছে, বারিয়াদহ বিল থেকে বালি উত্তোলনের টাকার ভাগবাটোয়ারাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হাতে গত ১৮ জানুয়ারী মো. সোহাগ মিয়াকে ডেকে নিয়ে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করে। হত্যার পর রূপসদী থেকে ফরদাবাদ শান্তির বাজার যাওয়ার পায়ে হাটার রাস্তার পাশে জমিতে ফেলে রাখে। এ ঘটনায় নিহতের পিতা হালিম মিয়া বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামী করে বাঞ্ছারামপুর থানায় গত বুধবার একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।




Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply