নাঙ্গলকোটে সন্ত্রাসী হামলা খরিদকৃত সম্পত্তি জবর দখলের চেষ্টা

জামাল উদ্দিন স্বপন:-
নাঙ্গলকোট উপজেলার বিশারা গ্রামের নুরুল হক চৌধুরীর পুত্র মহব্বত হোসেন চৌধুরী পাশ্ববর্তী খান্নাপাড়া গ্রামের মৃত আলী আহম্মদের পুত্র আলী আক্কাছ থেকে গোমকোট মৌজায় ৩০ শতক সম্পত্তি খরিদ করেন। ঐ খরিদ কৃত সম্পত্তি আলী আক্কাছ পুনরায় জবরদখল করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় বিশারা গ্রামের মহব্বত হোসেন চৌধুরী খান্নাপাড়া গ্রামের আলী আক্কাছ থেকে ২০০১ সালে ৩০ শতক সম্পত্তি ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা দিয়ে খরিদ করেন। ঐ খরিদ কৃত সম্পত্তি অদ্যাবধি পর্যন্ত মহব্বত হোসেন চৌধুরী ভোগদখল করে আসছেন। ঐ সম্পত্তি তিনি তার মামা মোজাম্মেল হকের নিকট বর্গা দিয়ে খুলনায় বসবাস করছেন। মহব্বত হোসেন চৌধুরী ২০০১ সালে ৯২ হাজার টাকার পরিশোধ করার পর সম্পত্তিটি রেজিষ্ট্রি করার জন্য দলিল লেখকের নিকট কাগজ পত্র নিয়ে গেলে কাগজপত্রে দেখা যায় সম্পত্তিটি আলী আক্কাছ তার স্ত্রীর নামে কিন্তু বি,এস খতিয়ান আলী আক্কাছের একক নামে। ঐ সময় আলী আক্কাছ খতিয়ান মূলে একক ভাবে মহব্বত হোসেন কবলা দিতে রাজি হয়। কিন্তু দলিল লেখক জানান, খতিয়ান সংশোধন করে কবলাটি আলী আক্কাছ ও তার স্ত্রী দু’জনে রেজিষ্ট্রি করে দিতে হবে, নচেৎ কবলাটি সঠিক হবে না। এ ক্রটি ধরা পড়ার কারনে আলী আক্কাছ খতিয়ান সংশোধন ও স্ত্রীকে বাধ্য করে কবলা দেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সময় নিয়া অদ্যাবধি পর্যন্ত রেজিষ্ট্রি করে দেয় নাই। তাহাকে বার বার তাগাদা দেয়া সত্ত্বেও বিভিন্ন অজুহাতে কবলা করে দেন নাই। আর তিনি বাদ বাকী ৩৩ হাজার টাকাও নেন নাই এবং রেজিষ্ট্রি করে দেননাই।

গত ১২ ফেব্রুয়ারী শনিবার আলী আক্কাছ শতাধিক সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে ধারালো অস্ত্রসস্ত্র, লাঠি সোঠা ও হাল নিয়ে সম্পত্তিটি জবর দখলের চেষ্টা করেন। ঐ সময় মহব্বত হোসেনের মামা মোজাম্মেল হক স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে আপোষ মিমাংসার চেষ্টা করলে তাকে হত্যা করার চেষ্টা করে। এব্যাপারে স্থানীয় নাঙ্গলকোট পৌর কাউন্সিলর রেজাউল করিম মজুমদারের সাথে কথা বললে আলী আক্কাছ তাহাদের নিকট জানান, মহব্বত হোসেন চৌধুরী ২০০১ সালে ৫১ হাজার টাকা দিয়েছেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘটনাটি ঘটেছে। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply