আখাউড়ায় অনলাইনে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু

লিটন চৌধুরী,ব্রাহ্মণবাড়িয়া ০৯.০২.১১ :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় অনলাইনে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রম গত মঙ্গলবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। একই দিন আখাউড়া পৌরসভাসহ পাঁচটি ইউনিয়নের সচিব ও একজন করে স্বেচ্চা সেবককে ‘অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন’ করতে প্রশিক্ষণও দেয়া হয়। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় এই কার্যক্রম এখান থেকেই শুরু হয়েছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের যুগ্ম সচিব এবং জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আ ক ম সাইফুল ইসলাম চৌধুরী আখাউড়ার ১২ জন ডাটা এন্ট্রিকারী ও ৪ জন তদারককারীকে প্রশিক্ষণ দেন।

আখাউড়া উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের কমিউনিটি ই-সেন্টারে এই কার্যক্রমের সূচনা করা হয়। আগামী মার্চ মাসের ৩১ তারিখের মধ্যে উপজেলার প্রায় সোয়া এক লাখ নিবন্ধিত নারী-পুরুষ ও শিশুর তথ্য অনলাইনে যুক্ত হবে বলেও প্রকল্প পরিচালক আশা করেন। পৌরসভা ও ইউনিয়নগুলোতে জন্ম ও মৃত্যু বিষয়ে যে তথ্য রয়েছে ওইসব তথ্য অনলাইনে নিবন্ধনের পাশাপশি নতুন তথ্যও সেখানে নিবন্ধন করা হবে।

স্থানীয় সরকার বিভাগ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উপপরিচালক আ স ম হাসান আল-আমিন বলেন, bris.lgd.gov.bd/pub ঠিকানায় নাগরিকরা (যে সব এলাকায় অন লাইনে নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে) নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদন পত্রটি প্রিন্ট করে ১৫ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট পৌরসভা বা ইউনিয়নে জমা দিয়ে বাংলা অথবা ইংরেজী ভাষায় জন্ম বা মৃত্যু সনদপত্র গ্রহণ করতে পারবেন। তবে মৃত্যু সনদপত্র গ্রহণের জন্য মৃত ব্যক্তির জন্ম নিবন্ধন আগে থেকে করা না থাকলে তা করিয়ে নিতে হবে।

আখাউড়ায় অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন কার্যক্রম তদারকি করবেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, সহকারী কমিশনার ভূমি মো. জহিরুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মেজবাহ উদ্দিন ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আ ক ম সাইফুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, দেশের সবকটি বিভাগে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বিভাগগুলোর প্রতিটি জেলা ও থানায় এ কার্যক্রম চলবে। তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত সারা দেশে ২৮ লাখ ৩৬ হাজার ৪৬ জনের অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন হয়েছে। যার সংখ্যা প্রতি মুহুর্তে বাড়ছে।





Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply