চাঁদপুরে ১’শ ১০ কিলোমিটার নদী পথ ঝুঁকিপূর্ণ :নষ্ট হয়ে গেছে অধিকাংশ বিকনবাতি

এ কে এম শাহেদ, চাঁদপুর থেকে :

চাঁদপুরে ৬’শ ২০ কিলোমিটার নদী পথ রয়েছে। এরমধ্যে ১’শ ১০ কিলোমিটার নদী পথই ঝুঁকিপূর্ণ। কারন এ পথে বিকন বাতি ও লাইটের বয়ার অধিকাংশই চুরি ও নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে নৌযানগুলোকে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। বিশেষ করে বর্তমান ঘণ কুয়াশায় রাতের বেলা চলাচলে মারাত্মক বেগ পেতে হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনারও আশাংকা করা হচ্ছে। স্থানীয় অফিস সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুর বিভাগের নদী পথগুলোতে অসংখ্য ডুবোচর জেগে উঠার ফলে নদীর নাব্যতা কমে গেছে। তার মধ্যে দিক নির্দেশনার জন্য স্থাপিত বিকন বাতিগুলোর বেশীর ভাগই নষ্ট বা চুরি হয়ে গেছে। এছাড়া ১১টি লাইটেট বয়ার মধ্যে ৪টি বয়াই বন্ধ রয়েছে। এর ফলে প্রতিদিনই নৌ-চলাচলে মারাতœক বিঘিœত হচ্ছে। চাঁদপুর নারায়ণগঞ্জ রুটের লঞ্চের সুকানী বাবুলাল কৃষ্ণদাস জানান, দিনের বেলায় কোন রকম লঞ্চ চালিয়ে আসলেও রাতের বেলা বন্ধ রাখতে হয়। নদীর চ্যানেলগুলো রাতের বেলা নির্ধারন করা অসম্ভব হয়ে পরে। ফলে লঞ্চ বন্ধ রাখতে হয়। অনেক সময় নদীর মাঝখানে লঞ্চ চরে আটকে গেলে ঘন্টার পর ঘন্টা যাত্রীদের নিয়ে বসে থাকতে হয়। লঞ্চ মাষ্টার আমির হোসেন জানান, নদীর চ্যানেলগুলো দ্রুত ড্রেজিং করা না হলে হয়তবা চাঁদপুরের সাথে নদী পথের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যেতে পারে । জানা যায়, চাঁদপুর থেকে নদী পথে প্রায় অর্ধশত লঞ্চ চলাচল করেছে। এ ব্যাপারে চাঁদপুর নৌবন্দর বিআইডাব্লিউটি এর উর্ধ্বতন উপ-পরিচালক মোঃ শাহাজাহানের সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, নদী পথকে সচল রাখার ব্যাপারে সরকারের আন্তরিকতার কোন অভাব নেই। দেশে মাত্র সরকারী ১৯ টি ড্রেজার রয়েছে। এর মধ্যে বেশীর ভাগ ড্রেজারগুলো দৌলতদিয়া, পাটুরীয়া, আরিচা এলাকায় প্রতিনিয়ত কাজে লেগে আছে। বাকীগুলো বিভিন্ন জায়গায় কাজ করছে। যেমন কিছুদিন পূর্বে চাঁদপুর-শরিয়তপুর ফেরী চলাচলের জন্য সেখানে ড্রেজ্রিং করে গেছে। এখন সেখানকার ফেরীগুলো চ্যানেল অনুযায়ী চলছে। তিনি আরো জানান, চাঁদপুর বিভাগের যে ১’শ ১০ কিলোমিটার নৌ-পথ ঝুঁকিপূর্ণ সেগুলোর ব্যাপারেও সরকারের নজর রয়েছে। হয়ত অচীরেই ড্রেজিং করার কাজ শুরু হবে। এছাড়া বিকনবাতিগুলোও মেরামত করার কাজ চলছে। কিছু সংখ্যক চোরের কারনে অতি মূল্যবান লাইটেট বয়া নদীতে রাখা যাচ্ছে না। আর এসব যন্ত্রপাতিগুলো বিদেশ থেকে আনতে হয় বিধায় সহজে মেরামতও করা সম্ভব হয় না।

Check Also

যে কোনো আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে : বিএনপি

চাঁদপুর প্রতিনিধি :– চাঁদপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সাধারণ সভায় বক্তারা বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম ...

Leave a Reply