বাধভাঙ্গা উচ্ছ্বাসের মধ্য দিয়ে ‘সেতুবন্ধন ফোরাম’র বর্ষপূর্তি উৎসব পালিত

মুনিফ আম্মার :

উদ্বেল আনন্দ, তারুণ্যের বাধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস আর বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার পালিত হয়েছে সাহিত্য- সাংস্কৃতিক ও শিশু কিশোর সংগঠন ‘সেতুবন্ধন ফোরামের’ পঞ্চম বর্ষপূর্তি উৎসব। এ উপলক্ষে কুমিল্লা টাউন হলে পালিত হয়েছে বর্ণাঢ্য নানা কর্মসূচি। কর্মসূচির মধ্যে ছিল চিত্রাংকন প্রদর্শনী, আলোচনা সভা, সঙ্গীত ও নৃত্যানুষ্ঠান।

সেতুবন্ধন ফোরামের পঞ্চম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে সন্ধ্যা ৭টায় কুমিল্লা টাউন হল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান, বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ আবদুর রউফ। সেতুবন্ধন ফোরাম সভাপতি মুনিফ আম্মারের সভাপতিত্বে ও সদস্য খাদিজাতুল কোবরার উপস্থাপনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও উন্নয়ন) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক ও বিএমএ কুমিল্লার সাবেক সভাপতি ডা. ইকবাল আনোয়ার। আলোচনায় অংশ নেন শিশু সংগঠক ও মধুমিতা কচি কাঁচার মেলার পরিচালক অনিমা মজুমদার, নারী নেত্রী অধ্যাপিকা জে এন লিলি, জেলা কালচারাল অফিসার বশির উল আনোয়ার, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। আহসান হাবীবের স্বাগত বক্তব্যে শুরু হওয়া আলোচনা সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অচিন্ত্য দাস টিটু, সম্মিলিত আবৃত্তি অঙ্গনের সভাপতি শাহিদুল ইসলাম সোহেল।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘শুদ্ধ সংস্কৃতি চর্চার অভাবে আমাদের সমাজে মাদক, ইভটিজিংয়ের মত জঘন্য কাজে যুব সমাজ লিপ্ত হয়ে পড়ছে। ফলে সমাজে ক্রমশ অশান্তি ছড়িয়ে পড়ছে। এসব অবক্ষয় রোধ করতে হলে সকলকে শুদ্ধ চিন্তা ও সুন্দর সংস্কৃতির কর্মে নিয়োজিত হতে হবে।

তিনি সেতুবন্ধন ফোরামের বর্ষপূর্তিতে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি সংগঠনের সমৃদ্ধি কামনা করেছেন।

আলোচকগন বলেন, ‘সেতুবন্ধন ফোরামের সদস্যরা গত ৫ বছর যাবত কুমিল্লায় নিবেদিতভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তারা স্বাধীনতার পক্ষে থেকে মুক্তবুদ্ধির চর্চা ও সুন্দর সংস্কৃতি বিকাশের ক্ষেত্রে অনন্য ভূমিকা রাখছে।’ আলোচকগণ তাদের আলোচনায় সেতুবন্ধন ফোরামের কার্যক্রমের প্রশংসা করার পাশাপাশি সংগঠটির সফলতা প্রত্যাশা করেন।

পঞ্চম বর্ষপূতি উপলক্ষে সংগঠনের পক্ষ থেকে ৩ গুণীজনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়। তারা হলেন নৃত্যশিল্পী ও নৃত্য নির্দেশক পিসি সাহা পলাশ, সংগঠক ও আপনজন সমাজ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক রোটা. ইঞ্জি. আমিনুর রসুল এবং তরুণ উদ্যোক্তা ও গ্লোবাল গ্র“পের চেয়ারম্যান খন্দকার খোরশেদ আলম আবাদ।

আলোচনা সভা শেষে পরম্পরা স্কুল অব ডান্স এন্ড আর্টসের পরিবেশনায় সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশিত হয়। পরম্পরা’র পরিচালক পিসি সাহা পলাশের পরিচালনায় এতে অংশ নেয় পূর্নিমা সাহা, শিশির, শাহেদ, সোহেল, সুমনা আক্তার মৌ, ঝরা সাহা প্রমুখ।

এর আগে বিকাল ৪টা থেকে টাউন হলের বারান্দায় চিত্রাংকন প্রর্দশনী শুরু হয়। প্রদর্শনীতে মুক্তিযুদ্ধ, আবহমান গ্রাম বাংলা ও যাপিত জীবন নিয়ে ২৫ জন শিশু আঁকিয়েদের চিত্রকর্ম প্রদর্শিত হয়।

পুরো আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতা করে কুমিল্লার বৃহত্তম সেলস্্ এন্ড সার্ভিসিং সেন্টার ‘আইটি প্যালেস’। উৎসবকে সুবিন্যস্ত করতে সহযোগিতায় ছিল সেতুবন্ধন ফোরামের সদস্য গাজী সালাহউদ্দিন স্বাধীন, ফারজানা বিনতে কামাল, আবদুল মোতালেব, তাহমিনা আক্তার, আল আমিন, নাহিদ সুলতানা আফরোজা, তানজীব আহমেদ, শফিকুল ইসলাম, নাজনীন আক্তার, আফসারা বিনতে আলম তন্নী ও আফসানা বিনতে আলম তান্নী ।

-লেখক
মুনিফ আম্মার
সভাপতি, সেতুবন্ধন ফোরাম

Check Also

দেবিদ্বারে অগ্নিকান্ডে ১কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ– কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে রান্না ঘরের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে ১৫টি ...

Leave a Reply