চান্দিনায় বিদ্রোহী প্রার্থী আর বিলম্বিত সিদ্ধান্তই কাল হলো আওয়ামীলীগের

মাসুমুর রহমান মাসুদ, স্টাফ রিপোর্টার :
চান্দিনা পৌরসভা নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী আর বিলম্বিত সিদ্ধান্তের কারণেই আওয়ামীলীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী পৌর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম এর পরাজয় হয়েছে। নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন চার জন। এরা হলেন, সাবেক কমিশনার মো. আবদুল জলিল, মো. শওকত হোসেন ভূইয়া, মো. আবু তাহের ভূইয়া ও মোখলেছুর রহমান দুলু মাষ্টার। আওয়ামীলীগের সিদ্ধান্ত মেনে মোখলেছুর রহমান দুলু মাষ্টার নিষ্ক্রিয় থাকলেও অপর তিন প্রার্থী ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েছেন। তাদের পক্ষে কিছু আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীও কাজ করেছেন, ফলে দলীয় ভিত দুর্বল হয়ে পরে।

নির্বাচনে মো. মফিজুল ইসলাম মেয়র পদে ৩হাজার ২শত ৫২ ভোট পেয়ে তৃতীয় হন। বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মেয়র পদে ৬হাজার ৫শত ৯৪ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। এদিকে আওয়ামীলীগের বহি®কৃত বিদ্রোহী প্রার্থী মো. আবদুল জলিল ২হাজার ১শত ১১ ভোট পান, মো. আবু তাহের ভূইয়া ৮শত ৫ ভোট পান এবং মো. শওকত হোসেন ভূইয়া ১শত ৮৩ ভোট ও মোখলেছুর রহমান দুলু মাষ্টার পান ২৭ ভোট। সব মিলে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা ৩হাজার ১শত ২৬ ভোট পেয়েছেন। বিদ্রোহী প্রার্থীদের ওই ভোটের মধ্যে আওয়ামীলীগের সমর্থকদের ভোটই বেশি ছিল বলে আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা ধারণা করছেন।

এদিকে বিদ্রোহের কারণে নির্বাচনের কয়েকদিন আগে একক প্রার্থী ঘোষণা দিলেও আওয়ামীলীগের সমর্থক সাধারণ ভোটাররা বিপাকে পরে। ১৮ জানুয়ারী নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৫ জানুয়ারী উপজেলা আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থীদের বহিষ্কার করে। কিন্তু সিদ্ধান্তটি অনেক বিলম্বিত হওয়ার ফলে মাঠ গোছাতে হিমশিম খায় নেতাকর্মীরা। আওয়ামীলীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী মনোনয়নে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমন অভিযোগ থাকলেও ত্যাগী নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন হয়েছে বলে সাধারণ নেতাকর্মীরা জানিয়েছেন। বিগত কয়েকটি সংসদ নির্বাচন, সাংগঠনিক কর্মকান্ড ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে আওয়ামীলীগের সকল মিছিল, বিক্ষোভ, আন্দোলনে রাজপথে মুখ্য ভূমিকা ছিলো মেয়র প্রার্থী মো. মফিজুল ইসলাম কমিশনার এর। তার তৎপরতায় ঝিমিয়ে পরা চান্দিনা পৌর আওয়ামীলীগ সাংগঠকিভাবে আরও শক্তিশালী হয়। কিন্তু বিদ্রোহী প্রার্থী এবং কিছু নেতা-কর্মীর অসহযোগীতার কারণেই তার পরাজয় হয় বলে আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা জানান।

এক সময়ে কুমিল্লা জেলায় আওয়ামীলীগের দূর্গ হিসেবে খ্যাত চান্দিনা পৌরসভায় আওয়ামীলীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থীর পরাজয়কে দলের জন্য দুশ্চিন্তার কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন রাজনীতিকরা। চান্দিনা পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ মুক্তিযোদ্ধা তপন বক্সী কে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে বিদ্রোহী প্রার্থীদের কারণে তপন বক্সী তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলে গত ৭ জানুয়ারী উপজেলা আওয়ামীলীগ জরুরী বর্ধিত সভা করে পৌর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক, সাবেক কমিশনার মো. মফিজুল ইসলামকে আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী ঘোষণা করেন।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply