দখল হয়ে যাচ্ছে কুরুলিয়া খাল

লিটন চৌধুরী, ব্রা‏হ্মনবাড়িয়া :

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের পাহাড়ী ঢলের তোড়ের আঘাত থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরকে রক্ষা করার জন্য ব্রীটিশ আমলে মহকুমা প্রশাসন এন্ডারসন সেচ্ছা শ্রমের ভিত্তিতে শহরের কাউতলীর উপর দিয়ে একটি কৃত্তিম খাল খনন করে। যা বর্তমানে কুরুলিয়া খাল হিসেবে পরিচিত। কালের আবর্তে এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে এক সময়ের ক্ষরস্রোতা তিত তিতাস নদী হারিয়েছে তার নাভ্যতা। ক্রমশ নদীর তলদেশে পলি জমে বিভিন্ন স্থানে চড় জমে উটেছে। তাই বর্ষা মৈীসুমে স্বাভাবিক পানি হলেই বন্যার রূপনেয় বর্তমানের শ্রীহীন তিতাস নদী। আকস্মিক বন্যার হাতে থেকে রক্ষার জন্য এন্ডরসন (কুরুলিয়া) খালটির গুরুত্ব দিনদিন বাড়ছে। কিন্তু সংঘবদ্ধ এক শ্রেণীর ভ’মি খেকু চক্র এন্ডরসন (কুরুলিয়া) খাল ভরাট করে র্নিমান করছে দোকান পাট এবং অবৈধ পাথর ব্যবসা। যার কারণে করুলিয়া খালের গতিবিধি ক্রমশ পাল্টে যাচ্ছে ফলে এর উপর দিয়ে চলে যাওয়া কুমিল্লাÑসিলেট মহাসড়ক এবং ঢাকা-চট্রগ্রাম-সিলেট রেল পথের কুরুলিয়া ব্রীজ বেশ ঝুকি পূর্ন অবস্থায় রয়েছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে এ ব্যপারে গতকাল সরজমিনে কালে জানাযায় এলাকার প্রভাব শালী চক্রের সদস্যরা কাউতলী এলাকায় সড়ক ব্রীজের পাশে কুরুলিয়া নদী ভরাট করে অবৈধ ভাবে বালু এবং পাথর রাখার করে যাচ্ছে। সেই সাথে ইজারা না থাকা সত্বেও াঘোষিত ভাবে আদায় করছে প্রতি নৌকা থেকে ২০ টাকা হারে ইজারা সব মিলিয়ে প্রতিদিন ঐ নৌকা ঘাট থেকে গড়ে ৫ হাজার টাকা অবৈধ ভাবে ইজারা আদায় করা হয় বলে স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়। এদিকে ঐ প্রভাব শালী চক্রের সদস্যরা ঢাকা চট্রগ্রাম রেল পথ এবং ব্রীজের বিভিন্ন স্থান থেকে অবৈধ ভাবে পাথর এনে অন্য স্থানে গুড়ো করে কাউতলী করুলিয়া নদীর তীরে এনে বিক্রি করা হয় বলে সূত্র গুলো জানায়, জেলা প্রশাসনের নাকের ডোকায় এতো কিছু করা সত্বেও রিতি মত প্রশাসন রয়েছে নিবিকার

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply