কুমিল্লায় হাঁড় কাপানো শীত : জমে উঠেছে শীতের কাপড় বেচা-কেনা

সাকলাইন যোবায়ের, কুমিল্লা , ১২ই জানুয়ারী :

গত দু’দিন যাবত কুমিল্লায় হাড় কাপানো শীতে জনজীবনে দূর্ভোগ নেমে এসেছে। শীতের তীব্রতার কারনে শিশু, বৃদ্ধ, খেটে খাওয়া দিন মজুরসহ সকল মানুষের কষ্টের সীমা থাকছেনা।

মঙ্গলবার কুমিল্লায় দুপুর ১২:৪৫ মিনিটে সূর্যের দেখা পাওয়া যায়। শীতের তীব্রতার দরুন শীত বস্ত্রের দোকান গুলোতে ভীড় দেখা যায়। নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আয়ের বেশিরভাগ মানুষই ভীড় জমাচ্ছেন ফুটপাতের দোকানগুলোতে। শহরের চকবাজার, কাপড়িয়া পট্টি, গোয়ালপট্টি, রাজগঞ্জ, ছাতিপট্টি, বজ্রপুর, মনোহরপুর এবং কান্দিরপাড়ের ফুটপাতগুলোতে জমে উঠেছে শীতের কাপড়ের বেচা-কেনা।

শীতের কাপড়ের প্রচন্ড চাহিদা থাকায় ফুটপাতগুলোতে ক্রেতাদের উপচে পরা ভীড়ের কারনে দোকানীদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। ছাতিপট্টি, রাজগঞ্জ ও কান্দিরপাড়ের কয়েকজন দোকানীর সাথে কথা বলে জানা যায়, শীতের তীব্রতার দরুন বেচা-কেনা ভাল, ক্রেতারা তুলোনামূলক ভাবে সস্তায় শীতের গরম কাপড় পাওয়ার জন্য এসকল দোকানে ভীড় জমায়।

শীতের কাপড়ের পাশাপাশি কুমিল্লার লেপ-তোশকের দোকানীরাও ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। তাদের সাথে আলোচনায় জানা যায়, সিঙ্গেল লেপ ১৫ থেকে ১৮’শ টাকা এবং ডাবল্ লেপ গুলো ২২ থেকে ২৫’শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে আর চায়না কম্বলগুলো বিক্রি হচ্ছে ১৫’শ থেকে ৪ হাজার টাকা পর্যন্ত।

শহরের ছাতিপট্টি এলাকার দোকানী রহিম মিয়া জানান, ছোটদের পেন্ট ও সুয়েটার সেট পাওয়া যাচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে, বড়দের হাফহাতা সুয়েটার বিক্রি করা হচ্ছে ১৫০ থেকে ২’শ টাকা পর্যন্ত এবং ফুলহাতার জাম্পার ২’শ থেকে ২৫০ টাকা পর্যন্ত। বড়দের ফুলহাতা জ্যাকেট ৩’শ থেকে ৩৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া মুজা, কানটুপি, মাফলার, কানঢাকুনী বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত এবং মহিলা ও পুরুষদের গায়ের চাঁদর বিক্রি করা হচ্ছে ১২০ থেকে ২’শ টাকা পর্যন্ত। ‘

গত দু’দিন যাবত কুমিল্লায় প্রচন্ড কুয়াশা ও শীতের তীব্রতার কারনে বৃদ্ধ ও শিশুরা ঠান্ডা জনীত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। নিউমোনিয়া, সর্দি, শ্বাসকষ্ট, হাঁপানি এবং শীতের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল গুলোতে ভর্তি হচ্ছে। কুমিল্লা বিএমএ এর সাধারণ সম্পাদক ডা: আজিজুর রহমান সিদ্দিকি এ প্রতিবেদককে বলেন, শীতের তীব্রতায় বৃদ্ধ ও শিশুরা ঠান্ডা জনিত রোগে বেশি আক্রান্ত হয়, শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়ার লক্ষন দেখা গেলে শিশুদেরকে হাসপাতালে দ্রুত ভর্তি করানোর পরামর্শ দেন।

Check Also

দেবিদ্বারে অগ্নিকান্ডে ১কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ– কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে রান্না ঘরের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে ১৫টি ...

Leave a Reply