ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৩ আসনে আসন্ন সংসদ উপনির্বাচনে মাঠে আছেন এক ডজন প্রার্থী

ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ২৪ ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর-৩- আসনের আওয়ামীলীগের দলীয় সাংসদ, জেলা আওয়ামীলীগ ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুল হাই সাচ্চুর মৃত্যুর পর নির্বাচন কমিশন বুধবার উপ-নির্বাচনের তফছিল ঘোষণা করেছেন । ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ২ জানুয়ারী মনোনয়নপত্র দাখিল , ৪ জানুয়ারী বাছাই , ১১ জানুয়ারী মনোয়ন প্রত্যাহার , ২৭ জানুয়ারী ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ।

এদিকে তফসিল ঘোসনার আগ থেকেই এখানে উপনির্বাচনের জন্য প্রর্থীদের তৎপড়তা চোখে পড়ছিল । তফসিল ঘোষণার পর প্রচার প্রচারনা আরও বেগবান হয়েছে । উপ-নির্বাচনে কারা প্রার্থী হচ্ছেন এই আলোচনাই এখন লোকজনের মুখে মুখে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতিমধ্যেই তাদের সমর্থকদের সাথে মত বিনিময় ও যোগাযোগ শুরু করেছেন। উপ-নির্বাচনের বিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতারা প্রকাশ্যে মুখ না খুললেও তাদের সমর্থকরা নেতাদের পক্ষে মুখ খুলেছেন। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে অন্তত ৫ জন উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান বলে কর্মী সমর্থকদের কাছ থেকে জানা গেছে। বিএনপি ও চারদলীয় জোটের পক্ষ থেকেও অন্তত ৫ জন উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন চাইবেন বলে বিএনপি’র কর্মী সমর্থকদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে। জেলা আওয়ামীলীগের একাধিক নেতাকর্মীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক একান্ত সচিব, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব গভর্ণস এর গভর্ণর র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন এটা এক প্রকার নিশ্চিত। তিনি গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও সদর আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। মোকতাদির চৌধুরী জরুরী অবস্থার সময় বাতিল হওয়া অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সদর আসনে মহাজোট থেকে মনোনয়ন পেয়েছিলেন। দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা গ্রীণ সিগন্যাল দিলেই তিনি উপ-নির্বাচনের প্রার্থী হিসেবে মাঠে নামবেন। এদিকে প্রয়াত সাংসদ অ্যাডভোকেট লুৎফুল হাই সাচ্চুর সমর্থকরা জানিয়েছেন উপ-নির্বাচনে প্রয়াতের সহধর্মীনি মিসেস ফরিদা হাই মনোনয়ন চাইবেন। তার পক্ষে লুৎফুল হাই সাচ্চুর সমর্থকরা দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন। এছাড়া সুলতানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লায়ন ফিরোজুর রহমান ওলিও , জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শফিকুল আলম এমএসসি, আওয়ামীলীগ নেতা আমানুল হক সেন্টু উপ-নির্বাচনে মনোয়ন চাইবেন বলে নেতা কর্মীদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে। এছাড়া মহাজোটের পক্ষ থেকে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহা সচিব অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়া মনোনয়ন চাইবেন বলে পার্টির নেতারা জানিয়েছেন।

জেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী, সাবেক প্রতিমন্ত্রী, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ সভাপতি ও জেলা বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট হারুন আল রশিদ উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হবেন। দলের মধ্যে তার পাল্লাই ভারী। এই আসনে তিনি ৫ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। এছাড়াও জেলা বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ এমরানুর রেজা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সিনেট সদস্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রুহুল আলম আল মাহবুব মানিক ও সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার খালেদ মাহমুদ শ্যামল উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হবেন বলে নেতাকর্মীদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে।

এদিকে জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের একজন নেতা জানিয়েছেন, ইসলামী ঐক্য জোটের চেয়ারম্যান মুফতি ফজলুল হক আমিনী অতীতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে নির্বাচন করলেও উপ-নির্বাচনে তিনি সদর আসনে প্রার্থী হবেন।

উল্লেখ্য প্রয়াত সাংসদ অ্যাডভোকেট লুৎফুল হাই সাচ্চু ১৯৭৪ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ছিলেন। ২০০৪ সালের সম্মেলনে তিনি সভাপতি নির্বাচিত হন। ২০০৮ এর সংসদ নির্বাচনে তিনি ৪ দলীয় জোট প্রার্থী বিএনপি নেতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট হারুন আল রশিদকে ৭৫ হাজারেরও বেশি ভোটে পরাজিত করে সদর আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। গত ২২ নভেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সাংসদ লুৎফুল হাই সাচ্চু ইন্তেকাল করেন।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply