চৌদ্দগ্রামে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

কুমিল্লা, ২৪ ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :
চৌদ্দগ্রামে পারিবারিক কলহের জের ধরে এক সন্তানের জননীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের বর্ধনবাড়ি গ্রামে বুধবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে।

স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের বর্ধনবাড়ি গ্রামের আলী আহম্মদের ছেলে ইমাম হোসেন (২৮) সাথে ঘোলপাশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর গ্রামের কাছিম আলীর মেয়ে জয়নবী আক্তারের (২২) দুই বছর পুর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় জয়নবীর বাবা স্বর্ণ-গহনা, আসবাবপত্র ও নগদ ৪০ হাজার টাকা প্রদান করেন। বিয়ের পর থেকে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হয়। এর জের ধরে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কলহের একপর্যায়ে বুধবার গভীর রাতে ইমাম হোসেন তার স্ত্রী জয়নবীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য জয়নবী আত্মহত্যা করেছে বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে। পরদিন বৃহস্পতিবার সকালে হত্যাকান্ডের ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর নিহত গৃহবধুর স্বামী ইমাম হোসেন পালিয়ে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌছে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

এ সময় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই কাঞ্চন কান্তি দাস বলেন, ঘটনাটি হত্য না আত্মহত্যা তা ময়নাতদন্দের রিপোর্টের আগে বলা যাবে না। তবে নিহত গৃহবধূর গলা ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহত গৃহবধুর ভাই বাবুল মিয়া বলেন, আমার বোনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। আমি এর সুষ্ঠ্য বিচার দাবি করি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply