সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী গ্রেপ্তার :রাজনৈতিক অঙ্গনে ফের উত্তেজনা

নিউজ ডেস্ক, 16 ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে বৃহস্পতিবার ভোরে রাজধানীর বনানীর একটি বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এরপর তাকে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে গ্রেপ্তারের জন্য আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে আবেদনের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আটক করা হল বিএনপির এই বর্ষীয়ান নেতাকে । তাকে আটক বা গ্রেপ্তার রাখার নির্দেশনা চেয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের আইনজীবী প্যানেল ও তদন্ত সংস্থার সদস্যরা বুধবার আবেদন করেন। রবিবার শুনানির দিন ধার্য করার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত ।

এদিকে আটক বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীকে গাড়ি পোড়ানোর ঘটনায় ফারুক হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে দুপুরে দিকে এই মামলায় তার দশদিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়। রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিবলী নোমান জানান, রমনা থানায় গত ২৬ জুন হরতালে গাড়ি পোড়ানোর ঘটনায় ফারুক হত্যা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জানা গেছে, র‌্যাবের একটি দল সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে নিয়ে ভোর সাড়ে ৬টার দিকে মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে যায়। এরপর তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে আবার তাকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তার পরিবারের সদস্য ও দলের নেতা-কর্মীরা ভিড় করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের নামে নির্যাতন করা হচ্ছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ সাংবাদিকদের বলেন, ‘সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিষয়ে যে তথ্যাদি রয়েছে, তা আইনের আওতায় আনার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেছি। তার বিরুদ্ধে বক্তব্য ও সাক্ষ্য দিয়ে সাক্ষীরা ভয়-ভীতি ও শঙ্কা নিয়ে দিন কাটাচ্ছেন। তাকে বাইরে রাখলে তদন্তকাজ বিঘ্নিত হবে।’

এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে রবিবার চট্টগ্রামে অর্ধদিবস হরতাল আহ্বান করেছে বিএনপি।
বৃহস্পতিবার দুপুরে বিজয় দিবসের শোভাযাত্রার আগে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।তিনি বলেন, সরকার ফের বাকশালে ফিরে যাওয়ার ষড়যন্ত্র করছে। সালাহউদ্দিন কাদেরকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে সরকারের ফ্যাসিবাদী চরিত্র আবারো প্রকাশ পেল।

সাকা চৌধুরীর গ্রেপ্তারকে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ হিসাবে আখ্যায়িত করেছেন বিএনপি মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিএনপির চেয়ারপারসেনর সঙ্গে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার আইন ও আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয় মন্তব্য করে দেলোয়ার বলেন, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে গ্রেপ্তার আবেদনের ওপর আদালতে শুনানি চলছে। অথচ এর আগেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিএনপি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের বহুদলীয় গণতন্ত্রে বিশ্বাসী দল উল্লেখ করে তিনি বলেন, যারা মানবতাবিরোধী কাজ করেছে বিএনপি সব সময় তাদের বিচার চায়।

স্বাধীনতার পর পরই যুদ্ধাপরাধের বিচার সম্পন্ন করা উচিত ছিল মন্তব্য করে দেলোয়ার বলেন, আওয়ামী লীগ স্বাধীনতার পর ১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচার না করে নতুন করে বিরোধী দলকে নির্মূলের লক্ষ্যে নানা অপকৌশল করছে। ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে বিরোধী দলকে ধ্বংস করা লক্ষ্যে’ যথাসময়ে বিচার না করে স্বাধীনতার ৪০বছর পরে সরকার যুদ্ধাপরাধের বিচার প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

Check Also

লাকসাম-মনোহরগঞ্জের বিএনপি’র সাবেক এমপি আলমগীরের জাতীয় পার্টিতে যোগদান

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা-১০ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) বিএনপি’র সাবেক এমপি এটিএম আলমগীর জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেছেন। সোমবার জাতীয় ...

Leave a Reply