যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মধ্য দিয়েই জাতি দায়মুক্ত হবে -কুবি উপাচার্য

এম আহসান হাবীব, কুবি প্রতিনিধি :

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. আমির হোসেন খান বলেছেন, ‘জাতিকে মেধাশূণ্য করার নীল নকশা অনুযায়ী একাত্তরে জাতির সর্বোচ্চ মেধাবীদের হত্যার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর মদদে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে ন্যাক্কারজনক ভূমিকা পালন করেছিল তাদের দোসর রাজাকার, আলবদর ও আলশাম্স বাহিনী। দেশের স্বাধীনতা অর্জনের ৪০তম বছরে অবশ্যই এই ঘৃণ্যতম হত্যাযজ্ঞে জড়িত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিশ্চিত করতে হবে। আর তা করতে পারলেই জাতি সামগ্রিকভাবে দায়মুক্ত হবে।’ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে উপাচার্য প্রফেসর ড. আমির হোসেন খান, ট্রেজারার গোপাল চন্দ্র সেন, শিক্ষকমন্ডলী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হল, কাজী নজরুল ইসলাম হল ও নবাব ফয়জুন্নেছা চৌধুরাণী হলের পক্ষ থেকে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রস্তাবিত শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় উপাচার্য ড. আমির হোসেন বলেন, ‘দেশ স্বাধীনের প্রায় ৪০ বছর হতে চলছে। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ও তাদের এ দেশীয় দোসররা দেশের শিক্ষক, চিকিৎসক, ইঞ্জিনিয়ার, সাংবাদিক, লেখক, গবেষকসহ বিভিন্ন পেশার বুদ্ধিজীবীদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল। আমরা জাতি হিসেবে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি চির কৃতজ্ঞ। তিনি বর্তমান তরুন প্রজন্মের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমরা মুক্তিযুদ্ধ করো নি, দেখনি। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তোমাদের জানতে হবে এবং জানার চেষ্টা করতে হবে।’ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে সম্মিলিতভাবে কাজ করার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সকলকে উদাত্ত আহ্বান জানান।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply