চৌদ্দগ্রামে চোরাইকৃত সিএনজিসহ চোরাচক্রের সদস্য সুমন আটক

কুমিল্লা , ৯ ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :

চৌদ্দগ্রামে সিএনজি বেবী টেক্সী চোরচক্রের এক সদস্যকে চোরাই হওয়া সিএনজিটেক্সীসহ বুধবার রাতে মিয়াবাজার এলাকা থেকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চৌদ্দগ্রামের মিয়াবাজার এলাকায় সিএনজি বেবী টেক্সী গ্যারেজের অন্তরালে দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে চোরাইকৃত সিএনজি বেবীটেক্সী কম দামে ক্রয় করে অবৈধ ব্যবসা চালিয়ে আসছে উপজেলার পূর্ব কাশিপুর গ্রামের সুরুজ ড্রাইভারের ছেলে সুমন মিস্ত্রি। সম্প্রতি উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের একটি সিএনজি বেবী টেক্সি (কুমিল্লা থ-১১-৬৫০৫) চুরি করে ইঞ্জিন, চেচিস ও টেক্সী নাম্বার পরিবর্তন করে (কুমিল্লা থ-১১-৭৬৩৯) ভূয়া কাগজ পত্র তৈরি করে মুন্সিরহাট ইউনিয়নের বারাইশ গ্রামের আবুল কাশেমের নিকট সাড়ে ৩ লাখ টাকা বিক্রি করে। পরে জয়নালের ভাই বাবুল বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার সূত্র ধরে চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই মিজানুর রহমান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে সুমন মিস্ত্রিকে আটক করে। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী চোরইকৃত সিএনজি বেবীটেক্সিটি উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে সুমন মিস্ত্রি জানায়, ওই এলাকার আরো কয়েকজন চোরচকের সদস্য সহ দীর্ঘদিন ধরে তারা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সিএনজি বেবীটেক্সী চুরি/ছিনতাই করে এনে ভূয়া কাগজপত্র তৈরি করে ৩ -সাড়ে ৩ লাখ টাকা দামে বিক্রি করে দেয়। এ পর্যন্ত তারা ৪টি সিএনজিবেবী টেক্সী চুরি করে বলে পুলিশকে জানায়। বৃহস্পতিবার সকালে ধৃত সুমনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করে।ক, ৮ ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :
চৌদ্দগ্রামে সিএনজি বেবী টেক্সী চোরচক্রের এক সদস্যকে চোরাই হওয়া সিএনজিটেক্সীসহ বুধবার রাতে মিয়াবাজার এলাকা থেকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চৌদ্দগ্রামের মিয়াবাজার এলাকায় সিএনজি বেবী টেক্সী গ্যারেজের অন্তরালে দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে চোরাইকৃত সিএনজি বেবীটেক্সী কম দামে ক্রয় করে অবৈধ ব্যবসা চালিয়ে আসছে উপজেলার পূর্ব কাশিপুর গ্রামের সুরুজ ড্রাইভারের ছেলে সুমন মিস্ত্রি। সম্প্রতি উপজেলার কাশিনগর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের একটি সিএনজি বেবী টেক্সি (কুমিল্লা থ-১১-৬৫০৫) চুরি করে ইঞ্জিন, চেচিস ও টেক্সী নাম্বার পরিবর্তন করে (কুমিল্লা থ-১১-৭৬৩৯) ভূয়া কাগজ পত্র তৈরি করে মুন্সিরহাট ইউনিয়নের বারাইশ গ্রামের আবুল কাশেমের নিকট সাড়ে ৩ লাখ টাকা বিক্রি করে। পরে জয়নালের ভাই বাবুল বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার সূত্র ধরে চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই মিজানুর রহমান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে সুমন মিস্ত্রিকে আটক করে। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী চোরইকৃত সিএনজি বেবীটেক্সিটি উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে সুমন মিস্ত্রি জানায়, ওই এলাকার আরো কয়েকজন চোরচকের সদস্য সহ দীর্ঘদিন ধরে তারা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সিএনজি বেবীটেক্সী চুরি/ছিনতাই করে এনে ভূয়া কাগজপত্র তৈরি করে ৩ -সাড়ে ৩ লাখ টাকা দামে বিক্রি করে দেয়। এ পর্যন্ত তারা ৪টি সিএনজিবেবী টেক্সী চুরি করে বলে পুলিশকে জানায়। বৃহস্পতিবার সকালে ধৃত সুমনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply