তিতাসে পাশের হার বাড়াতে মরিয়া শিক্ষা অফিস :নকলে অভ্যস্হ হচ্ছে শিক্ষার্থীরা

নাজমুল করিম ফারুক :

উপজেলা চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার হল থেকে পাওয়া নকল দেখাচ্ছেন কেন্দ্রে বসে থাকা শিক্ষকদের।
কুমিল্লার তিতাসে প্রাথমিক ও এবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরিক্ষায় কোমলমতি শিক্ষার্থীরা নকল নির্ভর হয়ে পড়ছে পাশাপাশি জেলা পর্যায়ে পাশের হার বাড়াতে উপজেলা শিক্ষা অফিস মরিয়া হয়ে উঠেছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শনিবার প্রাথমিক ও এবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী গণিত পরিক্ষায় এ সব অনিয়মের চিত্র স্বচোখে পরোক্ষ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার। তিনি উপজেলার নারান্দিয়া (উত্তর) সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে দেখেন পরীক্ষার্থীরা একে অন্যের কাছ থেকে সহযোগিতা নিয়ে বিশৃংখল পরিবেশে পরিক্ষা দিচ্ছে। তখন দায়িত্বরত শিক্ষকদের এ ব্যাপারে সচেতন হওয়ার জন্য পরামর্শ দেন। পরে ইসলামাবাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশ করতে গিয়ে দেখেন শিক্ষার্থীরা অবাদে বই দেখে দেখে লিখছে। কেন্দ্রের চতুরদিকে ঘুরে তিনি শিক্ষার্থীদের নকল করার সত্যতা পান। তাৎক্ষণিক উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহানা আফরোজ, উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা শেখ মিরাজুল আশরেকীন, উপজেলা সরকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতা সাখাওয়াত হোসেন, মাহাবুবুর রহমান ও আক্তার হোসেনকে বিষয়টি অবহিত করেন।
এদিকে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শাহানা আফরোজকে একাধিক বার মোবাইল ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply