কুমিল্লায় কালি মন্দিরে সন্ত্রাসী হামলায় প্রতিমা ভাংচুর: আহত: ২৫

স্টাফ রিপোর্টার:
কুমিল্লা শহরের গাংচর ঋষি পট্টি এলাকার একটি কালি মন্দিরে প্রবেশ করে একদল সন্ত্রাসী একটি প্রতিমা ভাংচুর করেছে। এসময় হামলায় আহত হয়েছে অন্তত ২৫ জন। ঘটনার খবর পেয়ে রাত পৌনে ৮ টায় র‌্যাব ও পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন আনেন।
মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দ ও প্রত্য্দর্শীরা জানান ঋষি পট্টিতে আয়োজিত পূজা উৎযাপন উপলক্ষে ব্যাপক লোকের সমাগম ঘটে। তাই লোকজনের ভীড় সামলাতে সেখানকার একটি রাস্তা আপাতত বন্ধ করে দেয়া হয়। রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭ টা দিকে স্থানীয় রিপন ও মাসুম নামের দুই যুবক রিক্সা নিয়ে ওই রাস্তায় প্রবেশ করা নিয়ে মন্দির কমিটির লোকজনের সাথে ওই যুবকদ্বয়ের বাকবিতন্ডা হয় । কিছুন পর ওই যুবকরা তাদের আরো ২০/২৫ জন সহযোগীসহ লাঠিসোটা ও দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে মন্দিরে প্রবেশ করে কালিমূর্তি ভাংচুর করে । পরে তা টেনে হিচরে বাহিরে রাস্তায় এনে ফেলে দেয়।এসময় পাশের নারায়ন মন্দিরেও ভাংচুর করা হয়। ওই যুবকদের হামলায় নারী শিশুসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়। মারাত্বক আহতরা হচ্ছে সন্ধা রানী (৪৫), শিল্পী রানী (৩০),বেলী রানী (৪৫),গুরু দাস (৫০), রানা (২৫),মিলন (২৮), একা (৮), জগবন্ধু (৪০), অঞ্জলী (২৫), গোবিন্দ (৩৫), বিষু (৩৫), লী রানী (২৬), অনিমা দাস (২৭)। ঘটনার খবর পেয়ে র‌্যাব,পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তা ও পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ নিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের মাঝে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। রাত সোয়া ৯ টায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত সহকারী পুলিশ সুপার (সদর এ সার্কেল) শেখ মহিউদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান রাতেই ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হচ্ছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...