কচুয়ায় ফের দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষের আশংকায় পুলিশি টহল


চাঁদপুর, ২৪ সেপ্টেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম) :
চাঁদপুরের কচুয়ায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের আশংকায় পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে। বুধবার কচুয়া সরকারি হাসপাতালে প্রচন্ড ভিড়ে সোয়াইনফ্লুর টিকা আগে পরে দেয়াকে কেন্দ্র করে করইশ ও কোয়া গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে গুরুতর আহত উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক করইশ গ্রামের জাকির হোসেনের অবস্থা আশংকাজনক (ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন)।
বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে ওই ঘটনার জের ধরে করইশ গ্রামের আহতদের পক্ষ অবলম্বন করে কতিপয় যুবক কোয়া গ্রামের আলম (৩৬) নামের এক ব্যক্তিকে কচুয়া পৌর বাজারে বেদম প্রহার করে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে কোয়া গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। দুই গ্রামবাসী ফের সংঘর্ষে লিপ্ত হওয়ার জন্য প্রস্তুতি শুরু করে। এক পর্যায়ে কোয়া গ্রামের ক্ষুব্ধ শত শত লোক মিছিল নিয়ে কচুয়া পৌর বাজার অভিমুখী রওয়ানা হয়। এ অবস্থায় তাৎক্ষণিক ভাবে কোয়া অফিস পাড়া সহ কচুয়া পৌর এলাকায় পুলিশ কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে টহল ব্যবস্থা জোরদার করে। মিছিলকারীদেরকে মিছিল বন্ধে নিবৃত করে। উল্লেখিত এলাকায় বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে মোড়ে পুলিশ কড়া সতর্ক অবস্থান নেয়।
এএসপি সার্কেল (হাজীগঞ্জ) প্রনব কুমার রায় বিকাল থেকে কচুয়ায় অবস্থান করে পুলিশকে দিক নির্দেশনা দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করছেন। এদিকে উক্ত দু’গ্রামবাসীর মধ্যে ফের সংঘর্ষ বেঁধে যায় কিনা এলাকার জনগন এ আশংকায় আতংকিত হয়ে আছে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply