মুরাদনগরে শত কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিক্ষুব্দ এলাকাবাসী

মো. হাবিবুর রহমান, স্টাফ রিপোর্টার :

মুরাদনগর উপজেলায় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত রামচন্দ্রপুর-নাগেরকান্দি সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বিক্ষুব্দ এলাকাবাসী। সড়ক ও জনপথ বিভাগ জমি অধিগ্রহন না করে তাদের জমির উপর দিয়ে জোরপূর্বক রাস্তা নির্মান করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সরজমিনে পরিদর্শনকালে জানা গেছে, সড়ক ও জনপথ বিভাগ কুমিল্লার অধীনে প্রায় শত কোটি টাকা ব্যয়ে রামচন্দ্রপুর-নাগেরকান্দি সড়ক নির্মান করেন। উক্ত রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শত শত যানবাহন যোগে হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে আসছিল। সম্প্রতি নাগের কান্দি মৌজায় জমি অধিগ্রহন নিয়ে স্থানীয় জনগনের সাথে সড়ক ও জনপথ বিভাগের সমস্যা দেখা দিলে বিক্ষুব্দ এলাকাবাসী তা বর্তমান বাজার দরে অধিগ্রহন করার সম্মতি দেয়। বাজার মূল্য দিতে সড়ক ও জনপথ বিভাগের আপত্তি থাকায় জমির মালিক মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে মহিউদ্দিন, মৃত মোক্তার মিয়ার ছেলে মানিক মিয়া, মৃত বজলুর হকের ছেলে, সুবিদ আলী ও মৃত কেরামত আলীর ছেলে ছালামত এতে বাধ সাজে রাস্তাটি দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। তাদের দাবি, সরকার যদি বর্তমান বাজার মূল্যে রাস্তার মধ্যে থাকা তাদের ৩০ শতক জমি অধিগ্রহন করেন, তাহলে যানবাহন চলাচলে কোন বাধা সৃষ্টি করবেন না। ফলে ঐএলাকার প্রায় ১০/১৫টি গ্রামের লোকজন উপজেলা সদর মুরাদনগর, জেলা সদর কুমিল্লা ও রাজধানী ঢাকা সহ বিভিন্নস্থানে চলাচল করতে মারাত্মক অসুবিধার সম্মুক্ষীন হতে হচ্ছে। ফলে বাধ্য হয়ে ঐ এলাকার লোকজন যানবাহন চলাচল করার দাবি জানিয়ে থানার ওসি ও ইউপি চেয়ারম্যান এর নিকট আবেদন জানায়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রাস্তাটি দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপথ বিভাগ কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান জানান, পূর্বেও এ সড়কের বহু জায়গা অধিগ্রহন করা হয়েছে। বর্তমানে কিছু জায়গা অধিগ্রহন করার প্রক্রিয়া চলছে। যদি কেউ উক্ত রাস্তা দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে থাকে, তাহলে বিষয়টি জনস্বার্থে সামাজিকভাবে সমাধান করা প্রয়োজন। অধিগ্রহন করার আগ পর্যন্ত আমাদের কিছুই করার নাই।

মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমা বেগম জানান, ঐ রাস্তা দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধের বিষয়টি আমার জানা নেই। তারপরও খোঁজ-খবর নিয়ে দেখা হচ্ছে। আর জমি অধিগ্রহনের ব্যাপারে ডিসি অফিসের এলএ শাখা ভাল বলতে পারবে।

ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা আমিরুল আলম জানান, এ বিষয়ে প্রাপ্ত অভিযোগ আসার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে বলেছি, উক্ত রাস্তা দিয়ে যানবাহন চলাচলে যেন কোন বাধা সৃস্টি না করে, করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মুরাদনগর সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মজিবুল হক জানান, ঐ এলাকার লোকজন যানবাহন নিয়ে চলাচল করতে না পেরে আমাকেও থানায় লিখিতভাবে অভিযোগ দিয়েছে। আমি ঢাকায় থাকায় বিষয়টি শুরাহা করতে পারিনি, শুনেছি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল, কি করেছে জানিনা।

Check Also

দেবিদ্বারের সাবেক চেয়ারম্যান করোনা আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় মৃত্যু: কঠোর নিরাপত্তায় গ্রামের বাড়িতে লাশ দাফন

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ভাণী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান (৫৫) করোনায় আক্রান্ত ...

Leave a Reply