চান্দিনায় ভাইয়ের হত্যাকারীদের বিচার দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন:বাদিকে হুমকি


মাসুমুর রহমান মাসুদ,স্টাফ রিপোর্টার, চান্দিনা:
ভাইয়ের হত্যাকারীদের খোঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে গত মঙ্গলবার বিকেলে (৩ আগস্ট) চান্দিনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে নিহত মো. আবু ইউসুফ এর বড় ভাই মো. আবুল কালাম মোল্লা। তিনি দাবি করেন পরিকল্পিত ভাবে আবু ইউসুফকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত আবু ইউসুফের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায়। একই উপজেলার জাহাঙ্গীর ভূইয়া নামক এক ব্যবসায়ীর দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ বাজারের চাল আড়ৎ এ সে চাকরি করত। কাজ শেষে আড়তেই রাত্রিযাপন করত সে। গত ৩০ জুলাই ইলিয়টগঞ্জ বাজারের পার্শ্বে লাজৈর মৎস্য প্রজেক্ট থেকে আবু ইউসুফ এর ক্ষত বিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে নিহতের বড় ভাই মো. আবুল কালাম মোল্লা বাদি হয়ে দাউদকান্দি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে জাহাঙ্গীর ভূইয়া তার ব্যক্তিগত মোবাইল ০১৭১৫-৮৯৭১৬৪ থেকে তাকে মামলা তুলে নিতে বলে, তা না হলে তাকে হত্যা করার হুমকি দেয়।
নিহতের ভাই সংবাদ সম্মেলনে আরও অভিযোগ করেন, ছয় মাস আগে আড়ৎ মালিক জাহাঙ্গীর ভূইয়ার ভাই মো. জালাল উদ্দিন ক্যাশ থেকে নগদ দশ হাজার টাকা নিয়ে যায়। আবু ইউসুফ ওই ঘটনা মালিক জাহাঙ্গীর ভূইয়াকে অবহিত করলে মো. জালাল উদ্দিন ক্ষুব্ধ হয়ে আবু ইউসুফকে বেধরক মারধর করে। ঘটনার পর আবু ইউসুফ চাকরি ছেড়ে বাড়িতে চলে যায়। পরে জাহাঙ্গীর ভূইয়া ইউসুফের বাবা আঃ রাজ্জাক মোল্লার কাছে মা চেয়ে আবু ইউসুফকে আবার দোকানে নিয়ে আসে। গত ২৯ জুলাই বৃহস্পতিবার মো. জালাল উদ্দিন জোরপূর্বক আড়ৎ থেকে তিন বস্তা চাল নিয়ে যায়। এসময় বাঁধা দেয় আবু ইউসুফ। ওই রাতেই সে নিখোঁজ হয়। ৩০ জুলাই আবু ইউসুফের লাশ উদ্ধার করে দাউদকান্দি থানা পুলিশ কুমিল্লায় মর্গে পাঠায়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...