পঞ্চম সংশোধনী বাতিলের রায় পেলেই জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা হবে – আইন প্রতিমন্ত্রী


ঢাকা, ১৭ জুলাই ২০১০ (কুমিল্লাওয়েব ডটকম) :
চলতি বছরেই চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার কাজ সম্পন্ন করার কথা জানিয়েছেন আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। বলেছেন, ‘পঞ্চম সংশোধনী বাতিলের রায় পেলেই অবশ্যই জামায়াতকে নিষিদ্ধ করা হবে।’ শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাব কনফারেন্স রুমে আয়োজিত ‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দ্রুত বাস্তবায়ন, সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার ও বিরোধী দলের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘খুব দ্রুত চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচারিক কার্যক্রম শুরু করা হবে। চলতি বছরের মধ্যেই ওই চিহ্নিত ঘাতকদের বিচার কার্যক্রম শেষ করা হবে।’ সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনী সম্পর্কে বিরোধী দলের ভূমিকার সমালোচনা করে কামরুল ইসলাম বলেন, তারা পাকিস্তানের মতোই ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার চেষ্টা করে। এসময় পঞ্চম সংশোধনী মানেই সংবিধান থেকে ‘বিসমিল্লাহ’ বাদ দেয়া নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
তিনি বলেন, ‘জিয়ার কারণেই যুদ্ধাপরাধের বিচার করতে আমাদেরকে ৩৯ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। তবে এতো দিনের পুরোনো তথ্য সংগ্রহ করে মামলা দায়ের করতে বিলম্ব হলেও বিচার কাজ বিলম্বের কোনো সুযোগ নেই।’ মুক্তিযুদ্ধের পর বিএনপি প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভূমিকার তীব্র নিন্দা করে আইন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধীদের নিজের মন্ত্রী পরিষদে পুনর্বাসিত করে তিনি দেশকে পিছিয়ে দিয়েছেন।’ ‘যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষা করতে বিএনপি মাঠে নেমেছে’ মন্তব্য করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ কিন্তু এতে লাভ হবে না। তারা (বিরোধী দল) কতটুকু পর্যন্ত যেতে পারে, তা আমাদের হিসাব কষা আছে।’
জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও অর্থনীতিবিদ ড. আবুল বারাকাতের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহাম্মদ হোসেন প্রমুখ। বাংলাদেশ ইসলামী ব্যাংকের সমৃদ্ধিকে মুক্তিযুদ্ধের সংস্কৃতি বিরোধী উল্লেখ করে আবুল বারাকাত বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের পথকে সহজ করতে মৌলবাদদের অর্থনৈতিক শক্তিকে রুখে দিতে হবে। দেশে মোট ১ হাজার ৮২৫ জন যুদ্ধাপরাধী ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, নিজেদেরকে সভ্য জাতি হিসাবে প্রমাণ করতে চাইলে অবশ্যই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতে হবে। দেশের সংবাদ মাধ্যমগুলোর সমালোচনা করে আবুল বারাকাত বলেন, মিডিয়াগুলো সত্য কথা কম বলে। সংবাদ মাধ্যমের কারণেই দিন দিন নিজস্ব সংস্কৃতি থেকে জাতি দূরে সরে যাচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধে বিএনপির ভূমিকাকে ‘বাইচান্স’(সুযোগ সন্ধানী) বলে উল্লেখ করেন বারাকাত।

Check Also

মিনি ওয়াক-ইন-সেন্টারের মাধ্যমে রবি’র গ্রাহক সেবা সম্প্রসারণ

ঢাকা :– গ্রাহক সেবাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে মোবাইলফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড সম্প্রতি মিনি ওয়াক ...

Leave a Reply