সিলেটে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে এমসি কলেজের ছাত্রলীগ নেতা খুন

সিলেটে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে খুন হয়েছে মুরারি চাঁদ (এমসি) কলেজের এক ছাত্রলীগ নেতা। সোমবার দুপুরে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত ছাত্রলীগ নেতা উদয় সিংহ পলাশ গণিত তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। পলাশের গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার গুলেরহাওর প্রকাশিত ভান্ডারীগাঁও গ্রামে। পলাশের বাবা ধীরেশ সিং সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্পোরাল ও মুক্তিযোদ্ধা।
সোমবার দুপুর ১টার দিকে উদয় সিংহ পলাশ ক্যাম্পাসে গেলে প্রতিপক্ষ গ্রুপের সদস্যরা তাকে একা পেয়ে ব্যাপক মারধর করেন। প্রথমে তাকে পিটিয়ে পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পলাশকে।
গুরুতর আহত উদয়কে ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
এদিকে, এ হত্যাকাণ্ডের পর থেকে টিলাগড় এলাকায় ছাত্রলীগের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংঘর্ষের আশঙ্কায় এমসি কলেজের বিভিন্ন পয়েন্টসহ সিলেটের বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, সোমবার সাড়ে ১২টায় এম সি কলেজ ক্যাম্পাসে দেলোয়ার নামের এক ছাত্রকে মারধর করে দেবাংশু দাস মিঠু সমর্থিত ছাত্রলীগ কর্মী ডায়মন্ড, ইসা আলম, মঞ্জুর আলম ও বেলাল। তারা দেলোয়ারকে বেল্ট দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।

এর জের ধরে পংকজ দেবনাথ সমর্থিত ছাত্রলীগ কর্মী সঞ্জয়, শিপন, জসিম, দেলোয়ার ও টিপু দুপুর ১টার দিকে কল্যাণপুর এলাকায় পলাশকে আক্রমণ করে। তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে পলাশের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে। তার শরীর হতে রক্তক্ষরণ হতে থাকলে তারা পলাশকে রাস্তায় ফেলে চলে যায়।

এক পর্যায়ে কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আজির উদ্দিন তাকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। বেলা দেড়টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

পলাশের একমাত্র বোন ও সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বিবিএ’র ছাত্রী অনামিকা সিনহা একমাত্র ভাইয়ের মৃত্যুর খবর শুনে হাসপাতালে এসে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। এ সময় সেখানে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

খবর পেয়ে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজসহ দলীয় নেতাকর্মীরা হাসপাতালে ছুটে যান।

এমসি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ জানান, পলাশ কলেজ ছাত্রলীগের একনিষ্ঠ কর্মী ছিল। তিনি তার মৃত্যুর কথা শুনেছেন।

পঙ্কজ জানান, দীর্ঘদিন ধরে এসসি কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি না হওয়ায় দলের নেতাকর্মীরা কয়েকভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। হয়তো দলীয় কোন্দলের কারণে পলাশকে হত্যা করা হতে পারে।
কোতয়ালী থানার ওসির দায়িত্বে থাকা উপ-পরিদর্শক নারায়ন দত্ত জানান, পুলিশ খুনীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে।
এদিকে ময়না তদন্ত শেষে বিকাল ৫টার দিকে নিহতের লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...