গুরুতর অসুস্থ মান্নান ভূঁইয়াকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে : লাইফ সাপোর্টে শ্বাস-প্রশ্বাস চালু রাখা হয়েছে


ঢাকা, ০৭ জুলাই ২০১০ (কুমিল্লাওয়েব ডটকম) :
গুরুতর অসুস্থ বিএনপির সাবেক মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়াকে সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় বুধবার সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরত আনা হয়েছে। এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে দেশে আনার পর তাকে সন্ধ্যায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে শ্বাস-প্রশ্বাস চালু রাখা হয়েছে সাবেক স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ও বর্ষীয়ান এই রাজনীতিককে। সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের চিকিৎসকদের পরামর্শেই তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে বলে পরিবার সূত্র জানায়। মান্নান ভূঁইয়া সেখানে সিসিইউতে (নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র) চিকিৎসাধীন ছিলেন। ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় তার শরীরে এ পর্যন্ত ৮ বার কেমোথেরাপি দেয়া হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে মান্নান ভূঁইয়ার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চাওয়া হয়েছে।
সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরার পর বিমানবন্দর থেকে মান্নান ভুঁইয়াকে অ্যাম্বুলেন্সে করে স্কয়ার হাসপাতালে আনার পথে যানজটে আটকা পড়ে মৃত্যুঝুঁকিতে পড়েছিলেন গুরুতর অসুস্থ বিএনপির সাবেক মহাসচিব আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া। মান্নান ভূঁইয়ার ছোট ছেলে ভুঁইয়া নন্দিত নাহিয়ান জানান, যানজট ডিঙিয়ে বিমান বন্দর থেকে আসার পথে বিজয় সরণির কাছে অক্সিজেন শেষ হয়ে যায়। আরেকটি অক্সিজেন সিলিন্ডার লাগানো হলে তাও শেষ পর্যায়ে নেমে আসে। এরকম অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সটি কোনোভাবেই হাসপাতালের দিকে যেতে পারছিলো না। ওই সময় ঢাকার মেয়র সাদেক হোসেন খোকা ওই পথ দিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। টেলিফোনে তাকে বিষয়টি জানান হলে তিনি নিজের পুলিশ প্রটেকশন গাড়িটি অ্যাম্বুলেন্সের সামনে দিয়ে উল্টো পথে দ্রুত স্কয়ার হাসপাতালে পৌঁছে দেন। এ সময় অক্সিজেন শেষ পর্যায়ে এসে পৌঁছালে অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরে থাকা চিকিৎসক পাম্প করে বাড়তি অক্সিজেন দিচ্ছিলেন। স্কয়ার হাসপাতালে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকরা দ্রুত মান্নান ভূঁইয়াকে ৫ম তলার আইসিইউতে নিয়ে যায়।”

প্রসঙ্গত, গত জোট সরকারের আমলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন মান্নান ভূঁইয়া। এছাড়া, ’৯৬ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত বিএনপির মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন প্রভাবশালী এ নেতা। বিগত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে বিএনপি চেয়ারপরসনের ক্ষমতা সীমিত করে গণমাধ্যমের সামনে সংস্কার প্রস্তাব তুলে বনে যান ‘সংস্কারপন্থি’। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার আগে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করে দায়িত্ব দেন বর্তমান মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনকে।

Check Also

মিনি ওয়াক-ইন-সেন্টারের মাধ্যমে রবি’র গ্রাহক সেবা সম্প্রসারণ

ঢাকা :– গ্রাহক সেবাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে মোবাইলফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড সম্প্রতি মিনি ওয়াক ...

Leave a Reply