ঘানাকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়ে সেমিফাইনালে উরুগুয়ে



স্পোর্টস ডেস্ক, ০২ জুলাই ২০১০ (কুমিল্লাওয়েব ডটকম) :

চল্লিশ বছর পর আবারো বিশ্বকাপ ফুটবলের সেমিফাইনালে উঠেছে উরুগুয়ে। শুক্রবার কোয়ার্টার ফাইনালে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়েছে ঘানাকে। নির্ধারিত ৯০ মিনিট ও অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলা ১-১ গোলে অমীমাংসিত ছিল।
কেপটাউনে ৬ জুলাই, সেমিফাইনালে উরুগুয়ে মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডসের। ঘানা ও উরুগুয়ে ম্যাচ অতিরিক্ত সময়েও অমীমাংসিত থাকায় খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। সেই �ায়ুযুদ্ধে জিতেছেন উরুগুয়ের গোলরক্ষক ফার্নান্দো মোসলেরা। ঘানার দু’টি শট আটকে দেন তিনি। যদিও অতিরিক্ত সময়েই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারতো ঘানা। শেষ মিনিটে কেভিন বোয়েটাংয়ের হেড প্রায় আশ্রয় নিতে যাচ্ছিল উরুগুয়ের জালে। কিন্তু গোললাইন থেকে হাত দিয়ে বল ফিরিয়ে দেন লুই সুয়ারেজ। এর মাশুল দেন লালকার্ড দেখে। আর পেনাল্টি পায় ঘানা। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করার সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি আসামোহ জিয়ান। তার শট বারপোস্টে লেগে চলে যায় মাঠের বাইরে।
প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেননি সুলে মুনতারি। ২৫ গজ দূর থেকে তার বাঁ পায়ের শট উরুগুয়ের গোলরক্ষক ফার্নান্দো মোসলেরাকে বোকা বানিয়ে আশ্রয় নেয় জালে (১-০)। পিছিয়ে পড়ে দ্বিতীয়ার্ধে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ উরুগুয়ে। একের পর আক্রমণ চালিয়ে এলেমেলো করে দেয় ঘানার রক্ষণভাগ। খেলার ৫৫ মিনিটে সমতা ফিরিয়ে আনে ১৯৩০ ও ১৯৫০ সালের বিশ্বকাপ জয়ীরা। গোল করেন ডিয়েগো ফোরলান।
খেলার শেষদিকে দু’দলই গোলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠলেও লাভ হয়নি। গোল পায়নি কোনো দলই। ফলে নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে অমীমাংসিত থাকায় খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। আফ্রিকার প্রথম দেশ হিসেবে ইতিহাস গড়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠার সুযোগ ছিল ঘানার সামনে। এরপর টাইব্রেকারের নাটকে স্বপ্ন ভাঙ্গে তাদের।

Check Also

মনোহরগঞ্জে ৪৪ তম জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসা ক্রীড়া-সাঁতার প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

মনোহরগঞ্জ প্রতিনিধি:– রবিবার কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলা সদরে অবস্থিত মনোহরগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে ৪৪ তম ...

Leave a Reply