চবিতে ১১৩ কোটি টাকার বাজেট পেশ

কুমিল্লায়েব ডেস্ক:
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১০-১১ অর্থবছরের জন্য প্রথমবারের মতো ১১২ কোটি ৯০ লাখ টাকার বাজেট পেশ করা হয়েছে। বরাবরের মতো এবারো শিক্ষা খাত উপেক্ষিত হয়েছে। সর্বোচ্চ বরাদ্দ রাখা হয়েছে বেতন ও ভাতাদি খাতে।
গত মঙ্গলবার সিনেটের ২২তম অধিবেশনে এ বাজেট পেশ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. শাহ আলম। অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবু ইউসুফ। অধিবেশনে সহ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলাউদ্দিন ও সিনেটের বিভিন্ন ক্যাটাগরির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
বাজেটের মোট বরাদ্দের মধ্যে ইউজিসি চবিকে প্রদান করবে ১০১ কোটি ৮০ লাখ টাকা। বাকি টাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ আয় ধরা হয়েছে। তবে এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের চাহিদা ছিল ১৩৪ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। বাজেটের মোট বরাদ্দকে মোট ছয়টি খাতে ভাগ করা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাদি খাতে ৭৬ কোটি ২০ লাখ টাকা। পেনশন এবং সাধারণ আনুষঙ্গিক খাতে যথাক্রমে ১৫ কোটি ৫০ লাখ ও ১০ কোটি ১১ লাখ টাকা। মেরামত, সংরক্ষণ ও পুনর্বাসনের খাতে বরাদ্দ এক কোটি ৬১ লাখ টাকা।
এছাড়া মূলধন মঞ্জুরি খাতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৮৮ লাখ টাকা। তবে গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা আনুষঙ্গিক খাতে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে মাত্র ৮ কোটি ৬০ লাখ টাকা। এ খাতে থাকা গবেষণা প্রকল্পের জন্য বরাদ্ধ রাখা হয়েছে মাত্র ৮ লাখ টাকা। গত অর্থবছরে চবির বাজেট বরাদ্দ ছিল ৮৫ কোটি ১২ লাখ টাকা। সিনেট অধিবেশনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবু ইউসুফ বলেন, শিক্ষার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।
এদিকে অধিবেশন শুরু আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সভাস্থল প্রশাসনিক ভবনের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির সদস্য ও ছাত্র উপদেষ্টা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...