চান্দিনায় সালিশ কর্তাদের দৌরাত্ম্য : এক লাখ ত্রিশ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

মাসুমুর রহমান মাসুদ,স্টাফ রিপোর্টার :
চান্দিনায় দিন দিন বেড়ে চলছে গ্রাম্য সালিশ কর্তাদের দৌরাত্ম্য। যে কোন বিষয়ে আইনের আশ্রয় না নিয়ে চলে গ্রাম্য সালিশী। গ্রামের সহজ, সরল লোকদের দুর্বলতাকে পূঁজি করে সালিশকর্তারা তাদের নিজের মনপুত রায় ঘোষণা করে । ফলে হয়রানির শিকার হয় সাধারণ মানুষ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই রায়ের টাকা আদায় হলেও ভুক্তভোগীরা ওই টাকার সিকিআনাও পায়না।
সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে উপজেলার এতবারপুর গ্রামে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ দৈহিক সম্পর্ক গড়ার অভিযোগে এতবারপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার ইসমাইল মিয়াকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পরে অভিযুক্ত মেম্বারের কাছ থেকে এক লাখ ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। কিন্তু দুই সপ্তাহ পরেও ওই টাকা পায়নি ভুক্তভোগী চালকল শ্রমিক হাসনেয়ারা বেগম । গতকাল রোববার (২০ জুন) হাসনেয়ারা বেগম অভিযোগ করেছেন, মধুসাইর গ্রামের রোস্তম আলী ভোলা ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা সহিদ শিকদারসহ কতিপয় দু®কৃতকারীরা ওই টাকা আত্মসাৎ করেছে। গত ১৩ জুন হাসনেয়ারা বাদী হয়ে সালিশ কর্তাদের বিরুদ্ধে চান্দিনা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। কিন্তু থানা পুলিশ এখন দর্শকের ভূমিকায়।
এ ব্যাপারে সহিদ শিকদার দেড় লাখ টাকা জরিমানা’র রায়ের কথা স্বীকার করে জানান, এক লাখ ত্রিশ হাজার টাকা আদায় হয়েছে। ওই টাকা রোস্তম আলী ভোলার নিকট জমা আছে।
চান্দিনা থানার অফিসার ইন চার্জ মো. নূরুল আফসার ভূইয়া জানান, আদালত ছাড়া সমাজকর্তাদের এত টাকা জরিমানা করার কোন বিধান নেই। হাসনেয়ারা টাকা পায়নি, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply