চান্দিনায় স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ মামলা : আরও একজন গ্রেফতার


মাসুমুর রহমান মাসুদ,চান্দিনা (কুমিল্লা) :
চান্দিনা উপজেলার কংগাই উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রীর ধর্ষণ মামলায় মূল হোঁতা নবির হোসেন (৩০) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সে কংগাই গ্রামের মৃত রহিম মিয়ার ছেলে। গতকাল মঙ্গলবার (১৫ জুন) সকালে এসআই বিকাশ এর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কংগাই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে গত সোমবার পরচঙ্গা গ্রামের আলী আজগরের ছেলে নুরু মিয়া পাখি (৪৬) কে গ্রেফতার করা হয়। মামলার অপর আসামী পরচঙ্গা গ্রামের মিলন মিয়া পলাতক রয়েছে।
পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, কংগাই উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ওই ছাত্রীর বাড়ি কংগাই গ্রামে। প্রতিদিনের মত গত শনিবার (১২ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় ওই ছাত্রী বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে ওই গ্রামের মৃত রহিম মিয়ার ছেলে নবির তার সাথে কথা আছে বলে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক একটি সিএনজি অটো রিক্সায় তুলে নেয়। এসময় অপর দুই সহযোগী অটো রিক্সায় তাকে বসিয়ে মুখে কাপড় দিয়ে মুখ বন্ধ করে দেয়। পরে তাকে পরচঙ্গা গ্রামের নুরু মিয়া পাখি’র নির্জন বাড়িতে আটকে রাখা হয়। বেলা ২ টায় ওই তিন নরপশু ঘরে ঢুকে পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করে। রোববার সকালে ধর্ষকরা তাকে বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় ছেড়ে দেয়। গতকাল সোমবার দুপুরে (১৪ জুন) ধর্ষিতা চান্দিনা থানার অফিসার ইন চার্জ এর নিকট ঘটনাটি জানায়।
চান্দিনা থানার অফিসার ইন চার্জ মো. নূরুল আফসার ভূইয়া জানান, ধর্ষণের অভিযোগে মূল হোঁতা নবির ও নুরু মিয়া পাখিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply