বিশ্বকাপ ফুটবলের ১ম দিনে কেউ হারেনি


বিশ্বকাপ ফুটবল , জুন ১২ (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :
২০১০ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রথম দিনে কেউ হারেনি। ১-১ গোলে সমতা রেখেই খেলা শেষ করতে হয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা ও মেক্সিকোর। জয়ের স্বপ্নে বিভোর স্বাগতিকদের সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে। অন্যদিকে বিশ্বকাপ ফুটবলে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ড্র করেছে ফ্রান্স। দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনে শুক্রবার রাতে উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে তারা গোলশূন্য ড্র করেছে উরুগুয়ের সঙ্গে।
প্রথম ম্যাচে আক্রামণ আর পাল্টা আক্রমণের মধ্য দিয়েই প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয়। অবশ্য প্রথমার্ধে মাঠ নিয়ন্ত্রণে রাখে মেক্সিকো। উভয় দলই কয়েকটি গোলের সুযোগ নষ্ট করে। খেলার ৩৮ মিনিটে অফসাইডের ফাঁদে বাতিল হয়ে যায় মেক্সিকোর কার্লোস ভেলার দেয়া গোল। দ্বিতীয়ার্ধে খেলার ৫৫ মিনিটে ৮ নম্বর জার্সি পরিহিত খেলোয়াড় শাবালালার দুর্দান্ত গোলে এগিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। নিজেদের মাঠে আনন্দে ফেটে পড়ে স্বাগতিক দেশের দর্শকরা।
২০ মিনিটের মধ্যেই বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় বদল করেন মেক্সিকোর কোচ। উদ্দেশ্য ফরওয়ার্ডকে আরো শক্তিশালী করা। ফলও পেয়েছেন এই কৌশলী কোচ। গোল পরিশোধে মরিয়া মেক্সিকোর খেলোয়াড়রা ৭৮ মিনিটে খেলায় সমতা ফিরিয়ে আনে। দক্ষিণ আফ্রিকার গোলরক্ষক খুনেকে অনেকটা একা পেয়ে গোল আদায় করে নেন রাফায়েল মার্কুয়েজ।
আগামী ১৬ জুন প্রিটোরিয়ায় উরুগুয়ের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৭ জুন পোলোকানে মেক্সিকো খেলবে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে।
দিনের অপর খেলায় ফ্রান্স গোলশূন্য ড্র করেছে উরুগুয়ের সঙ্গে, খেলার ৮০ মিনিটের মাথায় লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন উরুগুয়ের নিকোলাস লোডেইরো। এটাই এবারের বিশ্বকাপের প্রথম লালকার্ড। এরপর ১০জনের উরুগুয়েকে চেপে ধরলেও নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষ হওয়ার পর অতিরিক্ত তিন মিনিটেও গোল করতে পারেনি তারা। ফলে খেলা শেষ হয় গোলশূন্যভাবেই।
কেপটাউনের গ্রিন পয়েন্ট স্টেডিয়াম মাঠে নেমেই আক্রমণাত্মক খেলা শুরু করে ফ্রান্স। খেলা শুরুর ৭ মিনিটের মাথায় ফ্রাঙ্ক রিবেরি বল নিয়ে প্রতিপক্ষের ডিবক্সের মধ্যে ঢুকে পরেন। কিন্তু বল বারপোস্ট ঘেঁষে বাইরে চলে গেলে তার এ চেষ্টা ব্যার্থ হয়।
এরপর ১৫ মিনিটের মাথায় আরো একটি সুযোগ পেয়ে ফ্রান্সের অ্যানেলকা দারুণ একটা হেড করলেও বল চলে যায় বারের উপর দিয়ে।
খেলার ১৮ মিনিটে ল্যাটিন আমেরিকার শৈল্পিক দেশ উরুগুয়ের গোলরক্ষক মুসলেরা দক্ষতায় ফ্রান্সের ফ্রি-কিকে রিবিরি আবারো গোল করার এক অসাধারণ চেষ্টা ব্যর্থ করে দিলে বড় ফাড়া থেকে রক্ষ পায় তারা। থিয়েরি অরি, মালুদা এবং গিগনাতকে মাঠে নামালেও কাঙ্ক্ষিত সাফল্য পাননি ইউরোপের পাওয়ার ফুটবল খ্যাত ফ্রান্সের কোচ রেমন্ড ডমেনেখ। তবে দ্বিতীয়ার্ধে একাধিকবার প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠানোর সুযোগ পেয়েও সফল হয়নি কেউই।
শেষ মিনিটে ফ্রি কিক থেকে গোল করার একটা সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি দ্বিতীয়ার্ধে অ্যানেলকারের বদলি নামা থিয়েরি অঁরি। ফলে এবারের আসরের দ্বিতীয় ম্যাচেও জয়-পরাজয় অমিমাংষিত রেখেই মাঠ ছাড়লো দুই দল।
এদিকে জোহানেসবার্গের এলিস পার্কে আজ আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে মাঠে নামছে। প্রতিপক্ষ আফ্রিকার সুপার ঈগল নাইজেরিয়া। এ ম্যাচে আজ যে জিতবে গ্রুপ ‘বি’ থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট পাওয়া তার সহজ হয়ে যাবে। বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাইপর্ব পেরুতে কষ্ট হলেও ফেভারিটদের ফেভারিট হয়েই দক্ষিণ আফ্রিকা এসেছে আর্জেন্টিনা।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...