বাঙ্গরা গ্যাস ফিল্ডে গ্যাস উত্তোলন বন্ধ


কুমিল্লা, জুন ১০ (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :
কুমিল্লার বাঙ্গরা গ্যাস ফিল্ডে গত তিন দিন ধরে উত্তোলন বন্ধ। ফলে এই গ্যাস ফিল্ড থেকে প্রতিদিন সরবরাহ করা দুই শ’ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাসের ঘাটতি দেখা দিয়েছে জাতীয় গ্রিডে। সারা দেশে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংকট চরম আকার ধারণ করায় লোডশেডিং এ জনদুর্ভোগ বেড়ে গেছে।এর প্রভাবে আশুগঞ্জ সার কারখানায়ও উৎপাদন বন্ধ রয়েছে বলে জানাগেছে।
সোমবার বিকেলে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা গ্যাস ফিল্ডে আকস্মিক বিকট শব্দে পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গ্যাস চালিত রান্নার চুলাতে গ্যাসের চাপ কমে যাওয়ায় গ্রাহকরা দুর্ভোগে পড়েছেন। তাল্লোর এক কর্মকর্তার দাবি কোন বিস্ফোরণ ঘটেনি, বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটা মানেই হল অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হওয়া। আমাদের কিছু শ্রমিক গ্যাস ফিল্ডের ত্রুটি জনিত কিছু সমস্যা দেখে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবগত করা হলে, পেট্রো বাংলার সাথে আলোচনা সাপেক্ষে গ্যাস ্উত্তোলন বন্ধ করে দিই । ওই কর্মকর্তা আরো জানান, কি কারণে গ্যাস ফিল্ড বন্ধ করতে হয়েছে তা নি­িত করে বলা যাবে না। তবে দেশি বিদেশি বিষেশজ্ঞরা আসছেন। তাদের পর্যবেক্ষণের পরই নিশ্চিত করে বলা যাবে কি কারণে এসমস্যার সৃষ্টি হয়েছে এবং গ্যাস ফিল্ড কবে নাগাদ চালু করা সম্ভব।
বুধবার পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মোঃ হোসেন মনসুরের নেতৃত্বে উচ্চ পর্যায়ের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছেন বলে সূত্র জানিয়েছে। সূত্র জানায়, বুধবার ইংল্যান্ডের একটি বিশেষজ্ঞ দল এসে পৌঁছেছেন। সিংগাপুর থেকে অপর একটি বিশেষজ্ঞ দল আসছেন। তার পর আইরিস ও গ্রিস এবং সিংগাপুর থেকে বিশেষজ্ঞ দল পর্যায়ক্রমে আসবেন। তবে সূত্র কবে নাগাদ গ্যাস ফিল্ড চালু করা সম্ভব হবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি। পর্যবেক্ষক দল যখনই বলবেন তখন থেকেই গ্যাস উত্তোলন ও সরবরাহ কার্যক্রম চালু করা হবে।
তাল্লো বাংলাদেশ লি.’র গণসংযোগ ব্যবস্থাপক মেজর (অব.) জাফর উল্লাহ জানান, বাঙ্গরা গ্যাস ফিল্ডের ৯ নং ব্লকে গ্যাস অনুসন্ধানে পেট্রো বাংলার সাথে চুক্তি হয় ২০০১ সালে। ২০০৪ সালে ১ নং কূপটি খনন কালে বাঙ্গরা ক্ষেত্রটি আবিস্কার হয়। ২০০৬ সালের মে মাসে গ্যাস উৎপাদন শুরু হয়। বর্তমানে প্রতিদিন দুই শ’ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন করে আসছিল। উল্লেখ্য গত ২৮ এপ্রিল বাঙ্গরা গ্যাস ফিল্ডে “হাইড্রোকার্বন ডিউ পয়েন্ট ইউনিটে”র উদ্বোধন করেন বৃটিশ হাইকমিশনার স্টিফেন ইভান্স। হাইড্রোকার্বন ডিউ পয়েন্ট ইউনিট স্থাপনের মাধ্যমে সচ্ছ গ্যাস উৎপাদনের পাশা-পাশি গ্যাসের কার্বন, পানি, ও তৈল ছেকে বিশুদ্ধ গ্যাস সরবরাহ শুরু হয়। এছাড়া দেবীদ্বার উপজেলার ”গোপালনগর গ্যাস ফিল্ড” থেকে উত্তোলিত প্রায় ৪০-৬০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস বাঙ্গরা গ্যাস ফিল্ডের নামে উত্তোলিত ও সরবরাহ করে আসলেও স¤প্রতি ত্রুটির কারণে গোপালনগর গ্যাস ফিল্ডের উত্তোলন ও সর্বরাহ কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে।
শ্রমিকরা জানান, বাঙ্গঁরা গ্যাস প্লান্ট বি-১ বি-২, বি-৩, এবং বি-৪ এই চারটি কূপ রযেছে। এর মধ্যে ঐ দিন বি-৩ কূপে আকস্মিক চাপ বেড়ে গেলে বিকট শব্দে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয় ফলে সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা তাৎক্ষণিক ভাবে উৎপাদন বন্ধ করে দেন

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...