বরুড়ায় আবারো ২ হাজার রাউন্ড গুলি উদ্ধারঃ আতঙ্কিত ও উৎকণ্ঠায় দিন কাটছে গ্রামবাসীর

78801_comilla-pic স্টাফ রিপোর্টার কুমিল্লাঃ
কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার শিলমুড়ি গ্রাম থেকে আবারো প্রায় ২ হাজার রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে ১, ২ ও ৭ মে শিলমুড়ি এবং বালুয়া গ্রাম থেকে পুলিশ ও এলাকাবাসী তিন দফায় ৮ হাজার ৯৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছিল। এ নিয়ে বরুড়ার দুটি গ্রাম থেকে পুলিশ এ পর্যন্ত ১০ হাজার ৭৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করল।
পুলিশ জানায়, সোমবার দুপুরে শিলমুড়ি গ্রামের একটি কবরস্থান ও মন্দির সংলগ্ন এলাকা থেকে ১ হাজার ৯৭৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়দের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে সকালে শিলমুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসেনের পারিবারিক কবরস্থানে পুলিশ ও র‌্যাব অভিযান চালিয়ে দুটি ছোট বস্তাভর্তি ওই গুলি উদ্ধার করে। পুলিশ জানায়, সবই এসএলআরের তাজা গুলি।
এর আগে পুলিশ ৭ মে দুপুরে শিলমুড়ি গ্রামের মতুর্জ আলীর শুকনো পুকুরের মাটির নিচ থেকে কার্টনভর্তি ৭৬৮ রাউন্ড, ২ মে শিলমুড়ি গ্রামের বিল থেকে ১১ কার্টনভর্তি ৬ হাজার ৮৮১ রাউন্ড ও ১ মে বালুয়া গ্রামের একটি কালভার্টের নিচ থেকে বস্তাভর্তি ৪৫০ রাউন্ড এসএলআরের তাজা গুলি উদ্ধার করেছিল।
জেলা পুলিশ সুপার সফিকুল ইসলাম গুলির উৎসের সন্ধানে শিলমুড়ি আরআর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৫ মে স্থানীয় জনগণের সঙ্গে মতবিনিময় করেছিলেন। কিন্তু এখনও গুলির উৎসের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। এর আগে ৩ মে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আসাদুজ্জামান মিয়া, পুলিশ সুপার সফিকুল ইসলামসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন শিলমুড়ি গ্রাম পরিদর্শন করেন। এছাড়া কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মো. জামাল হোসাইনও শিলমুড়ি গ্রাম পরিদর্শন করেন।
এদিকে বারবার গুলি উদ্ধারের ঘটনায় এলাকার সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। উৎকণ্ঠায় দিন কাটছে শিলমুড়ি গ্রামবাসীর। এ বিষয়ে বরুড়া থানার ওসি রতনকৃষ্ণ নাথ জানান, গুলি উদ্ধারের ঘটনার প্রকৃত রহস্য বের করার জন্য তদন্ত চলছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...