মুরাদনগরে সংবাদিক নির্যাতনের ২মাস অতিবাহিত হলেও মামলা নেয়নি পুলিশ

মোঃ হাবিবুর রহমান.স্টাফ রিপোর্টার :
কুমিল্লার মুরাদনগরে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের হাতে দু’সাংবাদিককে জিম্মি করে লাঞ্ছিত করার ২ মাস অতিবাহিত হলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা নেয়নি পুলিশ। গত ৫ মার্চ শুক্রবার সকালে উপজেলার নবীয়াবাদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। লাঞ্ছিত দু’সাংবাদিক হলেন মুরাদনগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ।
জানা যায় নবীয়াবাদ গ্রামের ডা. আবুল খায়ের ও সন্ত্রাসী আবুল কাশেমের মধ্যে বাড়ির সিমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে সন্ত্রাসী আবুল কাশেম ও তার সঙ্গীয়রা আবুল খায়ের ও তার পরিবারকে তিনদিন যাবত জিম্মি করে রাখে। এ খবর পেয়ে ওই দু’সাংবাদিক মোটর সাইকেল যোগে ঘটনাস্থলে গেলে আবুল কাশেম (৪৮), আবুল হাশেম (৫২), মানিক (২৮) ও মনিরসহ (২৬) ১০/১২ জনের সংঘবদ্ধ দল সাংবাদিকদের উপর অতর্কিত আক্রমন চালায়। এ সময় তারা সাংবাদিকদের জিম্মি করে লাঞ্ছিত করাসহ মোটর সাইকেলটি এলোপাথারী পিটিয়ে ভাংচুর করে এবং তাদের সাথে থাকা ক্যামেরা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। প্রায় ১ ঘন্টা পর স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ এলাকার লোকজনের সহায়তায় সাংবাদিকরা জিম্মি অবস্থা থেকে মুক্তি পায়। এ ঘটনায় মুরাদনগর থানায় অভিযোগ করা হলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রহস্যজনক কারণে কোন প্রকার ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এ ব্যাপারে মুরাদনগর থানার ওসি আমিরুল আলম জানান, এ বিষয়ে প্রাপ্ত অভিযোগটির তদন্ত চলছে।
এদিকে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সন্ত্রাসী কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্ছিত করার ঘটনায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সাংবাদিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশে নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...