এবার ‘অনির্দিষ্টকাল নির্বাসন!’ এর ঘোষণা দিল পিসিবি

pakistan_cricket_logo
এস জে উজ্জ্বল :
বুধবার দুপুরে দুই সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ ইউসুফ এবং ইউনুস খানের আজীবন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। কিন্তু রাতেই হঠাত্ তা বদলে যায়। পিসিবির চেয়ারম্যান ইজাজ বাটের ব্যাখ্যা, ‘মোহাম্মদ ইউসুফ এবং ইউনুস খানকে মোটেই আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়নি। মিডিয়া ব্যাপারটার ভুল ব্যাখ্যা দিয়েছে। ওদের অনির্দিষ্টকালের জন্য জাতীয় দল থেকে নির্বাসিত করা হয়েছে। তাই দরকার পড়লে এবং বোর্ড চাইলে ভবিষ্যতে ওই দু’জনকে আবারও জাতীয় দলে নির্বাচনের জন্য বিবেচনা করা হতে পারে।’ এমনকি পিসিবির যে আইনি উপদেষ্টা তফাজুল রিজভী বিবৃতি দিয়েছিলেন ‘টিমের মধ্যে অন্তর্কলহ এবং দলাদলির কারণে ইউসুফ ও ইউনুসকে পাকিস্তানের হয়ে কোনো ধরনের ক্রিকেটেই আর কখনও খেলতে দেয়া হবে না’—সেই রিজভী পর্যন্ত ডিগবাজি খেয়ে বলছেন, ‘এটা মোটেই আজীবন নির্বাসন নয়। পরে আবার সিদ্ধান্ত বদলও হতে পারে।’ বাট এবং রিজভীর এই নতুন বক্তব্যের পর ইউসুফ, ইউনুস, মালিক, আফ্রিদি, নাভেদ এবং আকমল ভাইদের নির্বাসন ও জরিমানা নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন উঠে গেছে। গোটা ব্যাপারটাকেই লোক দেখানো প্রহসন বলে মনে করছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার এবং সাধারণ ক্রিকেটামোদিরা।এভাবে শাস্তি ঘোষণা আর পরে পিসিবির ডিগবাজি খাওয়াকে বোর্ডের চরম অপেশাদারিত্ব বলেই মনে করছেন তারা।
সাধারণ ক্রিকেটামোদিদের মতে, ‘গোটা ব্যাপারটাই হাস্যকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। পিসিবি আসলে কি চেয়েছে সেটাই পরিষ্কার নয়।’ একই সঙ্গে প্রশ্ন উঠেছে বাট ও তার পারিষদরা যেভাবে পিসিবি চালাচ্ছেন তা নিয়েও। জানা গেছে, পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট, পিসিবির প্রধান পৃষ্ঠপোষক আসিফ আলি জারদারির সঙ্গে কথা বলেই পিসিবি ওমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু যে কারণেই হোক তা থেকে আরও একবার ডিগবাজি খেল পিসিবি। একটি সূত্র বলছে, টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা চিন্তা করেই নিজেদের অবস্থান থেকে সরে এসেছেন কর্মকর্তারা। কারণ পাকিস্তান যে ট্রফি ধরে রাখতেই এপ্রিলে প্রতিযোগিতায় নামবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...