বাদীনি বললেন ‘ মামলা করিনি’ : কুমিল্লায় বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে খুনের মামলা নিয়ে আদালতে তোলপাড়

Chandina picture 31-01-10
স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা :
কুমিল্লা (উত্তর) জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খোরশেদ আলমের বিরুদ্ধে জেলার চান্দিনা থানা দায়েরকৃত একটি হত্যা মামলা নিয়ে গত ৩ দিন যাবৎ কুমিল্লার রাজনৈতিক অঙ্গনে বেশ তোলপাড় চলছে। খোদ ওই মামলার বাদীনি আদালতে হাজির হয়ে তিনি চান্দিনা থানায় কোন হত্যা মামলা দায়ের করেননি বলে এফডেভিড দিলে মঙ্গলবার ওই মামলা নিয়ে আদালত অঙ্গনে আরো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। ওই মামলায় গ্রেফতার হয়ে ওই বিএনপি নেতা বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছেন। মামলার বাদী সেলিনা বেগমের প্রকৃত পরিচয় নিয়ে সন্ধিহান হওয়ায় গতকাল মঙ্গলবার রিমান্ড ও জামিন শুনানী নিষ্পত্তি না করে পরবর্তী তারিখ ধার্য করা হয়েছে।পরবর্তী তারিখের মধ্যে এজাহারকারী সেলিনা বেগমের প্রকৃত পরিচয় খুঁজে বের করে তদন্তকারী কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
জানা গেছে, কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলার বড় আলীয়ারচর গ্রামের মৃত আঃ জলিলের পুত্র বিল্লাল হোসেন ২০০৩ সালে নিখোঁজ হয়। ২০০৭ সালে গত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে বিএনপি নেতা খোরশেদ আলম ও তার অপর এক ভাইয়ের বিরুদ্ধে এ ঘটনায় বিল্লাল হোসেনের আত্মীয় শহিদুল হক চান্দিনা থানায় হত্যা পূর্বক লাশ গুমের অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করে। তদন্তকালে ঘটনার কোন সত্যতা পায়নি বলে থানা পুলিশ ওই সালেই প্রতিবেদন দিলে আদালত পরে এ মামলাটি খারিজ করে দেয়। দীর্ঘ দিন পর গত ৩০ জানুয়ারি কুমিল্লা শহরের কাটাবিল এলাকার সকুন মিয়ার স্ত্রী সেলিনা বেগম বাদী হয়ে তার ভাই বিল্লাল হোসেনকে হত্যার অভিযোগে খোরশেদ আলম, তার ভাই ও প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে চান্দিনা থানায় মামলা দায়ের করে। এ মামলায় ৩০ জানুয়ারি খোরশেদ আলম ও তার এক কর্মচারীকে পুলিশ গ্রেফতার করে ৭ দিনের রিমান্ড’র আবেদনসহ পর দিন কুমিল্লার আদালতে প্রেরণ করে। এদিকে রিমান্ড শুনানীর আগেই মামলার এজাহারকারী পরিচয়ে সেলিনা বেগম আদালতে এফিডেভিট দাখিল করে জানায় ‘তিনি চান্দিনা থানায় কারো বিরুদ্ধে কোন হত্যা মামলা করেননি। এ ঘটনায় আদালতে তোলপাড় শুরু হয়। এ অবস্থায় গতকাল ২ ফেব্র“য়ারি মঙ্গলবার খোরশেদ আলমের জামিন ও রিমান্ড শুনানী নিষ্পত্তি না করে এজাহারকারী সেলিনা বেগমের প্রকৃত পরিচয় খুঁজে বের করে আগামী ৪ জানুয়ারির মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। এদিকে মঙ্গলবার সন্ধায় তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চান্দিনা থানার ওসি নুরুল আফসার ভূইয়া যুগান্তরকে জানান ‘মামলার বাদিনী এখন অন্য কোন কারনে থানায় মামলা দায়ের করার বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছেন’।

Check Also

কুমিল্লায় ডিবির অভিযানে ১৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ ডাক্তার গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টারঃ- রাজধানীতে ইয়াবা পাচারকালে ১৭ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার হয়েছেন মো. রেজাউল হক (৪৫) নামের ...