ধর্ম বর্ণ মত নির্বিশেষে ক্যাম্পাসে সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে স্বরস্বতী পূজার আলোচনায় কুবি ভিসি -ড. আমির হোসেন খান

CU-2
এম আহসান হাবীব, কুবি প্রতিনিধি :
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আমির হোসেন খান বলেছেন, সকল ধর্মই মানুষকে উদারতা, পরমত সহিষ্ণুতা এবং সহমর্মিতার শিক্ষা দেয়। তাই ধর্ম-বর্ণ-মত নির্বিশেষে ছাত্র-শিক্ষক সকলকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে। নানা বাধা-বিপত্তি ও প্রতিকূলতার পর অবশেষে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) ক্যাম্পাসে আয়োজিত বিদ্যা ও সংগীতের দেবী স্বরস্বতীর পূজা ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিসি এ কথা বলেন।। পূর্বে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা বাতিলের পর অনুমতি পেয়ে গতকাল স্বরস্বতী পূজা উপলক্ষে ক্যাম্পাসে বাণী অর্চনা ও ধর্মীয় আলোচনা সভার আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় পূজা উদ্যাপন কমিটি। পূজা উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক এবং হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের চেয়ারম্যান বিশ্বজিত চন্দ্র দেবের সভাপতিত্বে বাণী অর্চনা ও আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন পূজা উদ্যাপন কমিটির উপদেষ্টা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ড. গোপাল চন্দ্র সেন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কামাল উদ্দিন ভূঁইয়া এবং আর্টস ফ্যাকাল্টির ডীন ও প্রক্টর ড. মোঃ আবু জাফর। লোকপ্রশাসন বিভাগের দ্বিতীয় ব্যাচের ছাত্র দেবাশীষ বিশ্বাসের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের প্রভাষক নজরুল ইসলাম, মার্কেটিং বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও সহকারী প্রক্টর মোহাম্মদ সোলায়মান, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রভাষক তাজুল ইসলাম, শরিফুল আলম খন্দকার, গণিত বিভাগের প্রভাষক দুলাল চন্দ্র নন্দী, আব্দুল হাকিম, অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক মোসাদ্দেক হোসাইন, অর্থ ও হিসাব বিভাগের সহকারী পরিচালক সুব্রত কুমার বাহাদুর, পূজা উদ্যাপন কমিটির সভাপতি ও অর্থনীতি প্রথম ব্যাচের ছাত্র শান্ত চক্রবর্তী এবং পূজা উদ্যাপন কমিটির সেক্রেটারী ও মার্কেটিং প্রথম ব্যাচের ছাত্র নির্ঝর কুমার কুন্ডু প্রমূখ। হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের প্রভাষক ও সহকারী প্রক্টর তোফায়েল হোসেন মজুমদারের গাওয়া সংগীত পুরো অনুষ্ঠানে ভিন্ন মাত্রা যোগ করে।
জানা যায়, ছাত্র সংঘর্ষের কারণে দীর্ঘদিন বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার পর নতুন ভিসি ড. আমির হোসেন খান দায়িত্ব গ্রহন করলে গত ২৭ ডিসেম্বর ক্যাম্পাস খোলা হয়। এর পূর্বে রাজনীতি বন্ধ রাখা ও সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিবেশ সুষ্ঠু রাখার স্বার্থে গত ২৪ ডিসেম্বর ক্যাম্পাসে সকল প্রকার মিছিল-মিটিং, সভা-সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ ঘোষণা করে নোটিশ জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডি। শুরু থেকে চলে আসলেও এবার নোটিশ অনুযায়ী ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে স্বরস্বতী পূজা উদ্যাপনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে ধর্মীয় অনুষ্ঠান রাজনৈতিক কর্মকান্ডের আওতায় নয় বলে ক্যাম্পাসে পূজা উদ্যাপনের অনুমতি দাবি করে পূজা উদ্যাপন কমিটি। পত্রিকায় এ সংশ্লিষ্ট সংবাদ প্রকাশ এবং ছাত্র-ছাত্রীদের দাবির প্রেক্ষিতে অবশেষে ক্যাম্পাসে পূজা অনুষ্ঠান আয়োজনের অনুমতি দেয় প্রশাসন। ক্যাম্পাসে পূজা উদ্যাপনের অনুমতি দেয়ায় সংশ্লিষ্ট সকলেই সন্তোষ প্রকাশ করেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...