মুরাদনগরে নারী নির্যতনকারী সেই কাউছার গ্রেফতারঃ এলাকায় স্বস্তি

কুমিল্লার মুরাদনগরে ধৃত নারী নির্যাতনকারী ও কুখ্যাত ডাকাত কাউছার মিয়াকে (২৭)।
কুমিল্লার মুরাদনগরে ধৃত নারী নির্যাতনকারী ও কুখ্যাত ডাকাত কাউছার মিয়াকে (২৭)।
স্টাফ রিপোর্টার,মুরাদনগরঃ
কুমিল্লার মুরাদনগর থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে বহুল আলোচিত নারী নির্যতনকারী, কুখ্যাত ডাকাত ও দুর্ধর্ষ ক্যাডার কাউছার মিয়াকে (২৭) অবশেষে গ্রেফতার করায় এলকার সর্বমহলে স্বস্তি ফিরে এসেছে। সে বাংগরা পূর্ব ইউনিয়নের খামারগ্রামের করিম বাড়ির মোখলেছুর রহমান ওরফে মনু মেম্বারের ছেলে । এলকাবাসী নতুন করে স্বাধীনতা ফিরে পেলেও আবারো পুনরায় নারী নির্যাতনের আশংকায় ভয়ে কেউ মুখ খুলছে না। অনেকে ইজ্জত সম্মানের ভয়ে এলাকা ছেড়ে পরিবার পরিজন নিয়ে অন্যত্র বসবাস করছে। তার দ্বারা নারী নির্যাতনের ঘটনায় অনেক স্কুল ছাত্রী লেখাপড়া বন্ধ করে দিয়েছে। প্রবাসী স্বামী কাউছারের দ্বারা নির্যাতিত স্ত্রীকে তালাকের ঘটনাও ঘটেছে। তার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও ডাকাতিসহ অসংখ্য মোবাইল চুরির অভিযোগ রয়েছে। ১ থেকে ৩ শত টাকা হলেই তার কাছ থেকে ভাল মোবাইল ফোন ক্রয় করতে পারে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এলাকার সাধারণ মানুষ তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করাতো দুরের কথা ভয়েও মুখ খুলতে সাহস পায় না। বর্তমানে তার সহযোগী মৃধন মিয়ার ছেলে ইকরাম ও হাসান ধৃত কাউছারের বিরুদ্ধে স্বাক্ষী না দেয়ার জন্য প্রকাশ্যে হুমকি ধমকি দিয়ে বেড়াচ্ছে। তার গ্রেফতারের সংবাদ শুনে অনেকে মসজিদ ও মাজারে মোমবাতি দিচ্ছেন এবং পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলকাবাসী তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তীর দাবী জানিয়েছেন এবং দীর্ঘদিন যেন জেল খানায় আটক থাকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...