কুমিল্লায় অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে রেগুলেটর বেড়িবাঁধ নির্মাণ হলেও এলাকাবাসীর দুর্ভোগ শেষ হয়নি

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী,কুমিল্লা প্রতিনিধি :
কুমিল্লায় নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট ইউনিয়নের ছয়টি গ্রাম নিয়ে গঠিত ডাকাতিয়া নদীর তীরবর্তী শাখা খালের মধ্যে রেগুলেটর ও বেড়িবাঁধ নির্মাণ হলেও এলাকাবাসীর কোন উপকারে আসছেনা।
এলজিইডির তত্বাবধানে নির্মিত বেড়িবাঁধ ও রেগুলেটর ত্র“টিপূর্ন কাজের ফলে ব্রিজটিতে ফাটল ধরেছে। ব্রিজের নিচে সিমেন্ট ও বালু ঝরে পড়ছে। বর্ষাকালে প্রকল্প এলাকার লোকজনের ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রকল্পের অধীনে উপকারভোগী মাছ চাষের সুযোগ থাকলেও উল্লিখিত সমস্যাগুলোর কারণে মাছ চাষ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এলাকাবাসী । ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অবহেলায় অর্ধকোটি টাকায় নির্মিত প্রকল্পটি এলাকাবাসীর জন্য অভিশাপে পরিণত রয়েছে।
জানা যায়, উপজেলার রায়কোট ইউনিয়নের পুরাতন ডাকাতিয়া নদী তীরবর্তী ছয়টি গ্রাম রায়কোট, ছত্তারি পাড়া, কুকুরিখিল, গাডিয়াল, দাশনাই পাড়া এবং ঘাঁঘর গ্রামের ১ হাজার ৩৪টি পরিবারের ৮৩ হেক্টর জমি রয়েছে। প্রায় ৬০০ হেক্টর জমি উর্বর দোঁআশ মাটি সমৃদ্ধ। ধান পাটসহ বিভিন্ন ফসল ও ধান উৎপাদনের উপযোগী। প্রতিবছর বর্ষাকালে ডাকাতিয়া নদীর পানি আগাম প্রবেশ করে কৃষি ব্যবস্থা ব্যাপক বিপর্যয় নেমে আসে।
আবার পানি চলে যাওয়ায় চাষাবাদে ব্যাঘাত ঘটে। এলাকার কৃষকদের দীর্ঘদিনের আন্দোলনের ফসল হিসাবে ২০০৩ সালের জুলাই মাসে কুলাকালী পানি ব্যবস্থা সমিতি স্থাপিত হয়। সংশিষ্ট সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সম্প্রসারিত পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা ইউনিট দ্বিতীয় ক্ষুদ্রাকার পানি সম্পদ উন্নয়ন সেক্টর প্রকল্পের আওতায়
বেড়িবাঁধ নির্মাণে মোট ব্যয় হয় ৫৬ লাখ টাকা। ২০০৭ সালের ৯ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের পারফরমেন্স অডিট টিম উপপ্রকল্প পরিদর্শন করে নির্মাণ কাজের অসন্তোষ প্রকাশ করে। বর্তমানে স্লুইসগেটের বেহাল অবস্থা। পাশে রিটার্নিং ওয়ালটিতেও ফাটল ধরেছে।
ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। কুলাকালী পানি ব্যবস্থাপনা সমিতির সভাপতি মোঃ ছেরাজুল হক মজুমদার জানান, সম্পূর্ণ জালিয়াত প্রক্রিয়ায় স্লুইসগেইট নির্মাণ করায় এলাকাবাসীর মারাÍক ক্ষতি হয়েছে। তিনি এ প্রকল্পের ভবিষ্যৎ নিয়েও হতাশা ব্যক্ত করেন। এ ব্যাপারে জানতে কুমিল্লা এলজিইডি এর নির্বাহী প্রকৌশলী হারুনুর রশীদের মোবাইল ফোনে ০১৭১১-৪৪৭২৪৩ বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

Check Also

কুমিল্লায় ডিবির অভিযানে ১৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ ডাক্তার গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টারঃ- রাজধানীতে ইয়াবা পাচারকালে ১৭ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার হয়েছেন মো. রেজাউল হক (৪৫) নামের ...