নতুন বছরে বিরোধী দলকে সংসদে আসার আহবান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান

স্টাফ রিপোর্টার :
নতুন বছরে জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনের ভাষণে জিল্লুর রহমান প্রধান বিরোধী দলকে উদ্দেশ করে বলেন, “আমি আশা করি, বিরোধী দল সংসদে যোগদান করে জনগণ কর্তৃক ন্যস্ত নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতিতে অবদান রাখবে।”
রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর জিল্লুর রহমান এবারই প্রথম সংসদে বক্তব্য দিলেন। এর আগে ২০০৯ সালের ২৪ জানুয়ারি নবম জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে বক্তব্য দেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ।
এর আগে স্পিকার আব্দুল হামিদ তার বক্তব্যে বিরোধী দলকে সংসদে আসার আহবান জানান।
বিরোধীদলকে জাতীয় উন্নয়নে যথাযথ ভূমিকা রাখার আহবান জানিয়ে রাষ্টপতি বলেন, “বিরোধিতার জন্য বিরোধিতার গতানুগতিক ধারা থেকে তাদের বেরিয়ে আসতে হবে। গণতন্ত্র চর্চার প্রাণকেন্দ্র জাতীয় সংসদ।” সরকারি ও বিরোধীদলের সাংসদরা জাতির কাছে দায়বদ্ধ। এজন্য সব পক্ষই নিয়মিত সংসদে অংশগ্রহণ করে একে কার্যকর ও অর্থবহ করে তুলবে- এটাই জাতির প্রত্যাশা।
হিংসা-বিদ্বেষ, ব্যক্তিগত এবং সংকীর্ণ স্বার্থের ওপরে উঠে সাংসদদের গঠনমূলক, কার্যকর ও সক্রিয় হওয়ার আহবান জানান রাষ্ট্রপতি।
নতুন প্রজন্মকে তাদের শ্রম, মেধা ও জ্ঞান পরিপূর্ণভাবে কাজে লাগানোর আহবান জানিয়ে জিল্লুর রহমান বলেন, “ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য আমরা গড়ে দিয়ে যাব বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা- এ হোক আমাদের সকলের অঙ্গীকার।”
রাষ্ট্রপতি তার বক্তৃতার শুরুতে ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বরের ঘটনায় নিহত বঙ্গবন্ধু ও চার জাতীয় নেতাসহ অন্যরা, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত, চারদলীয় জোট সরকারের সময় নিহত আওয়ামী লীগের সাংসদ এবং বিডিআর বিদ্রোহে নিহতদের স্মরণ করেন। তিনি আরো স্মরণ করেন উপনিবেশিক শক্তির বিরুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী জাতীয় নেতাদের। রাষ্ট্রপতি তার বক্তৃতা শেষ করেন, ‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’ বলে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...