চান্দিনায় ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস করছে এক স্কুলের চার শতাধিক শিক্ষার্থী

স্টাফ রিপোর্টার :
কুমিল্লার চান্দিনার মাধাইয়া ছাদিম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী ও শিক্ষক জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। জানা গেছে, মাধাইয়া ছাদিম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মূল ভবন ১৯৪৩ সালে নির্মিত হয়। স্কুলটি প্রতিষ্ঠার পর ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকে। ফলে একতলা ভবনে জায়গা সংকুলান না হওয়ায় ভবনটি দোতলায় উন্নীত করা হয়েছে।
মাধাইয়া ছাদিম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মোজাম্মেল হোসাইন জানান, প্রতিদিনই আতঙ্কের মধ্যে থাকতে হচ্ছে। সহকারী শিক্ষক রুহুল আমিন বলেন, যখন স্কুল ছুটি হয় তখন ছাত্রছাত্রীরা ভয়ে দৌড়ে নিচে নামে।
এ সময় স্কুল ভবন কাঁপতে থাকে। ছাদের নিচের অংশ থেকে বালু ঝরতে থাকে। তিনি আশঙ্কা করছেন, ভূমিকম্প হলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা এ বিদ্যালয়ে ঘটতে পারে। এখনই ভবনটি ভেঙে নতুন ভবন নির্মাণ করা উচিত।
সরেজমিন দেখা গেছে, দ্বিতল জরাজীর্ণ ভবনে পাঠদান চলছে। ভবনটির ছাদে একাধিক স্থানে ফাটল ধরেছে। সামান্য বৃষ্টিতে পানি চুইয়ে পড়ে। শুধু তাই নয়, শ্রেণীকক্ষের বেঞ্চও অনেক পুরনো, ভাঙা ও জরাজীর্ণ। প্রতিষ্ঠার পর স্কুলটিতে নেই কোনো আধুনিকতার ছোঁয়া।
শিক্ষক মোঃ মোজাম্মেল হোসাইন জানান, আর্থিক সঙ্কটে চলছে প্রতিষ্ঠানটিতে। ফলে স্কুল ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার পরও নতুন ভবন নির্মাণ করা সম্ভব হচ্ছে না। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাজেরা খাতুন জানান, এ বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের জন্য শিক্ষা অধিদফতরে আবেদন করা হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...