রহস্যজনক আচরনকারী সহসভাপতির শাস্তি দাবি সভাপতির পদ থেকে ইউএনও’র পদত্যাগ

মুরাদনগর প্রতিনিধি :
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার মেটংঘর বি, আর, আই, এম উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর রহস্যজনক আচরনে ক্ষুব্দ হয়ে ওই বিদ্যালয়ের সভাপতির পদ থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম শওকত ইকবাল শাহীন পদত্যাগ করেছেন। বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা, ম্যানেজিং কমিটি ও অভিভাবকসহ সকল পেশাজীবী লোকজনের মাঝে তীব্র অসন্তোষ বিরাজ করছে। তারা বিদ্যালয় ধ্বংসের মূল হোতা সহসভাপতি ও কুমিল্লা পুলিশ লাইন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নূরে আলম সিদ্দিকীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।
জানা যায়, মেটংঘর গ্রামের মৃত মনিরুল হক ওরফে মানিক মিয়ার ছেলে নূরে আলম সিদ্দিকীকে বিগত ১১/০৮/০৮ইং তারিখে সহসভাপতি হিসেবে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিতে নির্বাচিত করা হয়। এ সুযোগে তিনি ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের তোয়াক্কা না করে নিজের খেয়াল-খুশীমত বিদ্যালয় পরিচালনা করেছেন। সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর বিভিন্ন আচরনে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকসহ শিক্ষক-কর্মচারীরা ও কমিটির সবাই ক্ষুব্দ। তাঁর রহস্যজনক আচরনে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শিরিনা বেগম মুরাদনগর থানায় একটি সাধারন ডায়রী করেন (যার নং-৬২৭, তাং১৬/০২/০৯ইং)। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উক্ত বিদ্যালয়ে ৩জন হিন্দু শিক্ষক ও ২৪৫ জন হিন্দু ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। কিন্তু বিদ্যালয়ের সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে গত ১১/০২/০৮ইং স্বরস্বতি পূজার ছুটির দিনেও বিদ্যালয় খোলা রাখেন। ঐদিন বিদ্যালয়ে না যাওয়ায় সহকারী শিক্ষিকা শিরিনা বেগমকে হাজিরা খাতায় লাল কালি দিয়ে অনুপস্থিত মার্ক করে বেতন কাটার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক কুমিল্লার নিকট অভিযোগ করা হয়েছে।
এ ছাড়াও সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী বিদ্যালয়ের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করে রেজুলেশন বহিতে শিক্ষক-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে যা মনে চায়, তা-ই লিখে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেন। বিস্বস্ত সূত্র থেকে জানা যায়, উক্ত বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার জন্য বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব গোলাম কিবরিয়া সরকার, বিদ্যালয়ের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ব্যাতিরেকে সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী তাঁর কুমিল্লাস্থ বাসায় গত ০৫/১১/০৯ইং তারিখে শিক্ষক নিয়োগ কমিটি গঠন করে নিজের পছন্দনীয় প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার চেষ্টা করেন এবং উক্ত সভায় কোরাম না হওয়ায় তা’ করতে তিনি ব্যর্থ হন। এ নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম শওকত ইকবাল শাহীন এর সাথে সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর মতানৈক্য দেখা দেয়। ক্ষুব্দ হয়ে সভাপতির পদ থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম শওকত ইকবাল শাহীন পদত্যাগ করেন। উক্ত বিষয়টি বিদ্যালয়সহ আশ-পাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তীব্র অসন্তোষ বিরাজ করছে। এলাকার সকল পেশাজীবী লোকজন সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।
এ ব্যাপারে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সমূহ তিনি অস্বীকার করেন। অপর দিকে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক প্রতিনিধি আব্দুল রারিক সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সঠিক বলে মন্তব্য করে জানান, আমরা নূরে আলম সিদ্দিকীকে সহসভাপতি বানাই নি, মেটংঘর গ্রামের কিছু উচ্ছৃংখল লোক তাকে সহসভাপতি বানায়। যেমন বানাইছে, তেমন মজা পাইতাছে। তিনি আরো বলেন, যে কোন কাজ কারো কাছ থেকে আদায় করতে হলে ব্যবহার দিয়ে কৌশলে পারা যায়। কিন্তু নূরে আলম সিদ্দিকী চায়, সবকিছু গায়ের জোরে আদায় করতে। যার ফলে এ ঘটনাটি ঘটেছে। সে কমিটিতে না থাকলে বিদ্যালয়টি আরো ভাল চলতো।
বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর রহস্যজনক আচরনে সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগকারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম শওকত ইকবাল শাহীন জানান, বিষয়টির ব্যাপারে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারী ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা ভালভাবে বলতে পারবেন।
বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফরিদ উদ্দিন জানান, কমিটির অমতে সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর লেখা একটি রেজুলেশন বিদ্যালয়ের সভাপতি ও ইউএনও স্যার মেনে না নিয়ে সংশোধন করেন। ফলে বেরসিক সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী মেনে নিতে না পেরে অসদাচরন করেন। এতে ক্ষুব্দ হয়ে সভাপতির পদ থেকে ইউএনও স্যার পদত্যাগ করেন। এছাড়াও আমরা বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারী ও ম্যানেজিং কমিটির সবাই সহসভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকীর রহস্যজনক আচরনে অস্বস্তি বোধ করছি। সভাপতি পদ থেকে ইউএনও স্যার পদত্যাগ করায় বিষয়টির ব্যাপারে কি করনীয় জানতে চেয়ে শিক্ষা বোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে, সম্ভবত কয়েক দিনের মধ্যেই শিক্ষা বোর্ড একটি সিদ্ধান্ত দেবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...