কুমিল্লায় ডাক্তারের বাসায় কাজের মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে তোলপাড়

Comilla pic-21-12
সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী,কুমিল্লা থেকেঃ
কুমিল্লা শহরে ডাঃ মিজানুর রহমানের বাসায় সুলতানা (১৫) নামের একজন কাজের মেয়ের রহস্য জনক মৃত্যু নিয়ে পুরো শহরে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। রোববার রাত সাড়ে ৯টায় কোতয়ালী থানা পুলিশ শহরের টমছমব্রীজ সংলগ্ন শীষ মামার মাজারের গলির ডাক্তারের বাসা থেকে ওই কাজের মেয়ের লাশ উদ্ধার করে।কিন্তু ওই কাজের মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেজ্ঞ ডাঃ মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী ডাঃ ফারজানা সুলতানার বাসার কাজের মেয়ে হিসেবে সুলতানা দীর্ঘ দিন যাবৎ কাজ করে আসছিল। ডাঃ ফারজানা সুলতানা কাজের মেয়ে সুলতানার উপর বিভিন্ন সময় অমানুষিক নির্যাতন চালাতো। রোববার নির্যাতনের শিকার হয়ে তার মৃত্যু হয়। নিহতের গলা,পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের একাধিক চিহৃ রয়েছে। খবর পেয়ে সাংবাদিকরা রাতে ঘটনাস্থলে গেলে প্রথমে ডাঃ ফারজানা সুলতানা সাংবাদিকদের বাইরে দাড় করিয়ে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে রাখেন। পরে কোতয়ালী থানা পুলিশের সহযোগিতায় সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে যায়। পুলিশ ও স্থানীয়রা ওই মৃত্যুকে রহস্যজনক বললেও ওই ডাক্তার দম্পতি বলছেন অবশ্য ভিন্ন কথা। ডাঃ মিজান জানান, গত কয়েক দিন যাবৎ সে বাড়ি যেতে চেয়েছিল, রোববারও বাড়ি যাওয়ার কথা বললে আমার স্ত্রী ডাঃ ফারজানা তাকে যেতে দেয়নি।ফলে রাগে ক্ষোভে বাথরুমে প্রবেশ করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মত্যা করে,তাকে নির্যাতন করা হয়নি। ওই কাজের মেয়ের মৃত্যু প্রসঙ্গে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান লাশ উদ্ধার করে সোমবার কুমেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিহত গৃহপরিচারিকা সুলতানা নরসিংদি জেলার বেলাবো উপজেলার ঘোষলাকান্দা গ্রামের মজিদ মিয়ার মেয়ে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...