প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইন্দিরা গান্ধী গোল্ড প্ল্যাক ২০০৯ পদকে ভূষিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
ডেস্ক নিউজ :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইন্দিরা গান্ধী গোল্ড প্ল্যাক ২০০৯ পুরস্কারে ভূষিত করেছে কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি, ভারতের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত পিনাক রঞ্জন চক্রবর্তী রোববার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এ পুরস্কারের জন্য তার মনোনীত হওয়ার কথা জানান।
কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি সমপ্রতি এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে শেখ হাসিনাকে ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর নামে প্রবর্তিত ওই পুরস্কার দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।
এশিয়াটিক সোসাইটি কলকাতা প্রতিবছর আন্তর্জাতিক সমঝোতা, আন্তঃসাংস্কৃতিক সহযোগিতা অথবা মানব উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য বিশ্বের বরেণ্য ব্যক্তিদের এ পুরস্কার দিয়ে থাকে। শান্তি ও মানবিক উন্নয়নে শেখ হাসিনার অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে মনোনীত করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।
১৯৮৪ সালের ১৭ নভেম্বর কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি এ পুরস্কার প্রবর্তন করে। ১৯৮৫ সালে প্রথম পুরস্কার লাভ করেন সুইডেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী উলোফ পালমে। এছাড়া যেসব আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব এ পুরস্কার লাভ করেছেন তারা হলেন- মাদার তেরেসা, সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব হাভিয়ার পেরেস ডি কুইয়ার, নেলসন ম্যান্ডেলা, ডেসমন্ড টুটু, ইয়াসির আরাফাত, অং সান সুচি,গ্যাব্রিয়াল গার্সিয়া মার্কেজ, পণ্ডিত রবিশঙ্কর, গুন্টার গ্রাস, ফিদেল ক্যাস্ট্রো, আর্নেস্ট স্টেইন কেলনার প্রমুখ।
আগামী জানুয়ারিতে ভারত সফরের সময় শেখ হাসিনা এই পুরস্কার গ্রহণ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
গত নভেম্বরে শেখ হাসিনাকে শান্তি ও মানব উন্নয়নের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৯ সালের ‘ইন্দিরা গান্ধী শান্তি পুরস্কার’ দেওয়া হয়।ড
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইন্দিরা গান্ধী গোল্ড প্ল্যাক ২০০৯ পুরস্কারে ভূষিত করেছে কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি, ভারতের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত পিনাক রঞ্জন চক্রবর্তী রোববার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এ পুরস্কারের জন্য তার মনোনীত হওয়ার কথা জানান।
কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি সমপ্রতি এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে শেখ হাসিনাকে ভারতের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর নামে প্রবর্তিত ওই পুরস্কার দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।
এশিয়াটিক সোসাইটি কলকাতা প্রতিবছর আন্তর্জাতিক সমঝোতা, আন্তঃসাংস্কৃতিক সহযোগিতা অথবা মানব উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য বিশ্বের বরেণ্য ব্যক্তিদের এ পুরস্কার দিয়ে থাকে। শান্তি ও মানবিক উন্নয়নে শেখ হাসিনার অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তাকে মনোনীত করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।
১৯৮৪ সালের ১৭ নভেম্বর কলকাতার এশিয়াটিক সোসাইটি এ পুরস্কার প্রবর্তন করে। ১৯৮৫ সালে প্রথম পুরস্কার লাভ করেন সুইডেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী উলোফ পালমে। এছাড়া যেসব আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব এ পুরস্কার লাভ করেছেন তারা হলেন- মাদার তেরেসা, সাবেক জাতিসংঘ মহাসচিব হাভিয়ার পেরেস ডি কুইয়ার, নেলসন ম্যান্ডেলা, ডেসমন্ড টুটু, ইয়াসির আরাফাত, অং সান সুচি,গ্যাব্রিয়াল গার্সিয়া মার্কেজ, পণ্ডিত রবিশঙ্কর, গুন্টার গ্রাস, ফিদেল ক্যাস্ট্রো, আর্নেস্ট স্টেইন কেলনার প্রমুখ।
আগামী জানুয়ারিতে ভারত সফরের সময় শেখ হাসিনা এই পুরস্কার গ্রহণ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
গত নভেম্বরে শেখ হাসিনাকে শান্তি ও মানব উন্নয়নের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৯ সালের ‘ইন্দিরা গান্ধী শান্তি পুরস্কার’ দেওয়া হয়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...